মাত্র চার বছর বয়সে বাবা মায়ের বিচ্ছেদের পরে কাজলের শৈশব কেমন ছিল

মাত্র চার বছর বয়সে বাবা মায়ের বিচ্ছেদের পরে কাজলের শৈশব কেমন ছিল

বিচ্ছেদের অর্থও তখন বুঝতেন না অভিনেত্রী। সম্প্রতি সেই অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন তিনি।

বিচ্ছেদের অর্থও তখন বুঝতেন না অভিনেত্রী। সম্প্রতি সেই অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন তিনি।

  • Share this:

    #মুম্বই: কাজলের যখন মাত্র চার বছর বয়স, তখনই তাঁর মা তনুজা ও সমু মুখোপাধ্যায়ের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। বিচ্ছেদের অর্থও তখন বুঝতেন না অভিনেত্রী। সম্প্রতি সেই অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন তিনি। জানিয়েছেন বিচ্ছেদের পর পরিস্থিতি আরো খারাপ হতে পারত। কিন্তু সৌভাগ্যবশত তাঁর শৈশব সেই আন্দাজে খারাপ কাটেনি।

    কাজল মা তনুজা সম্পর্কে বলেছেন, "আমার শৈশব সবচেয়ে সুন্দর ছিল। আমি খুব সৌভাগ্যবতী যে আমায় বড় করেছেন একজন অসাধারণ মানুষ। যিনি আমায় জীবনে অনেক কিছু শিখিয়েছেন। তবে সামান্য ভুলেই আমার শৈশব খারাপ হতে পারত।"

    অভিনেত্রী আরো বলছেন, "আমার বাবা-মার বিচ্ছেদ হয় যখন তখন আমার বয়স মাত্র সাড়ে চার। বিষয়টা খুব খারাপ হতে পারত। আমার অনেক বন্ধু ছিল যাদের বাবা মা এখনও একসঙ্গে রয়েছেন। কিন্তু বলা যায় না, তাঁরা সত্যিই সবচেয়ে ভালো আছেন। তাদের শৈশব এমন কিছু অসাধারণ ছিল না। বরং আমি আমার বাবা মাকে আলাদা আলাদা করে ভালবাসতাম। আবার একসঙ্গেও ভালবাসতাম।"

    তবে মা তনুজা তাঁর সঙ্গে সবসময় ছিলেন বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী। এমনকি অল্প বয়সে কাজলের বিয়ে করার বিষয়ে রাজি ছিলেন না সমু মুখোপাধ্যায়। তখন মেয়েকে সাহায্য করেছিলেন তনুজা। তারপরে অজয় দেবগনের সঙ্গে বিয়ে করেন কাজল। বহু বছর একসঙ্গে রয়েছেন তাঁরা। এই মুহূর্তে মেয়ে নাইসাকে নিয়ে সিঙ্গাপুরে রয়েছেন কাজল। অন্যদিকে ছেলে যুগের সঙ্গে মুম্বইতে রয়েছেন অজয়।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: