জিয়া খানকে সবার সামনে অন্তর্বাস খুলতে জোর করেছিলেন সাজিদ খান, বিস্ফোরক প্রয়াত অভিনেত্রীর বোন

জিয়া খানকে সবার সামনে অন্তর্বাস খুলতে জোর করেছিলেন সাজিদ খান, বিস্ফোরক প্রয়াত অভিনেত্রীর বোন
ফারহা খানের ভাই পরিচালক সাজিদ খানের বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিক মিটু অভিযোগ উঠেছে

ফারহা খানের ভাই পরিচালক সাজিদ খানের বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিক মিটু অভিযোগ উঠেছে

  • Share this:

    #মুম্বই: ২০১৩ সালের ৩ জুন... কোনও অজানা কারণে মৃত্যু হয় বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জিয়া খানের! কেন আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী? উত্তর আজও অজানা! সম্প্রতি বিবিসি 'ডেথ ইন বলিউড' শিরোনামে ৩টি ভাগে একটি তথ্যচিত্র বানিয়েছে, যেখানে মৃত্যুর সাড়ে ৭ বছর পর চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনলেন জিয়ার বোন।জিয়া খানের রহস্য মৃত্যুকে কেন্দ্র করে এগিয়েছে 'ডেথ ইন বলিউড'-এর চিত্রনাট্য। উঠে এসেছে হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির নানা অন্ধকার দিক। সেখানেই জিয়ার বোন করিশ্মার অভিযোগ, পরিচালক সাজিদ খান যৌন হেনস্টা করে জিয়াকে। তিনি এও বলেন, সবাই জানে জিয়া আত্মহত্যা করেছিল, কিন্তু সত্যিটা অন্য! উল্লেখ্য, ফারহা খানের ভাই পরিচালক সাজিদ খানের বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিক মিটু অভিযোগ উঠেছে। যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন অভিনেত্রী-মডেল সলোনি চোপড়া, র‍্যাচেল হোয়াইট, ডিম্পল পল এবং এক সাংবাদিক।

    'ডেথ ইন বলিউড'-এ করিশ্মার বিস্ফিরক অভিযোগ, '' একদিন রিহার্সাল চলছিল। জিয়া স্ক্রিপ্ট পড়ছিল। তখনই সাজিদ খান জিয়াকে বলেন টপ খুলতে এবং সাবর সামনে অন্তর্বাস খুলে দাঁড়াতে। জিয়া চমকে গিয়েছিল। তখনও সিনেমার শ্যুটিং-ই শুরু হয়নি, তারমধ্যেই এই অবস্থা! ভেবে দেখুন, কতটা অসহায় অবস্থার মধ্যে ছিল জিয়া। বাড়ি ফিরে দেখেছিলাম ও হাউহাউ করে কাঁদছে।'' করিশ্মা এও জানান, সাজিদ খান বারবার জিয়াকে ভয় দেখাতেন, যদি তাঁর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক না রাখে, তাহলে তিনি তাকে ছবি থেকে বের করে দেবেন।


    ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসার পরই সরব হবেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত-সহ বলিটাউনের একাধিক তারকা। কঙ্গনা ট্যুইট করেন, '' ওরা জিয়াকে মেরেছে, সুশান্তকে মেরেছে, আমাকেও মারার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু এত কিছু পরও ওরা দেখুন কী সুন্দর রাস্তাঘাটে ঘুরে বেরাচ্ছে, কাজ করছে... প্রতি বছর আরও একটু শক্তিশালী হচ্ছে!''

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: