আর সহ্য করতে পারছেন না! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভেঙে পড়লেন জেনিফার উইনজেট

আর সহ্য করতে পারছেন না! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভেঙে পড়লেন জেনিফার উইনজেট

সোশ্যাল মিডিয়ায় আর নিজেকে সামলে রাখতে পারলেন না, ভেঙে পড়লেন জেনিফার উইনজেট (Jennifer Winget)!

সোশ্যাল মিডিয়ায় আর নিজেকে সামলে রাখতে পারলেন না, ভেঙে পড়লেন জেনিফার উইনজেট (Jennifer Winget)!

  • Share this:

#মুম্বই: কৌলীন্যের অভাব যে এখনও আছে, যত ফ্যান ফলোয়িং থাকুক না কেন আসলে গল্পটা সেই সেকেন্ড ক্লাসের, তা ওই ছোট পর্দা নামকরণটাই বুঝিয়ে দেয়! তার মধ্যে শুধুই প্রেক্ষাগৃহের পর্দা আর ঘরের টিভির পর্দার আয়তনের তফাতটা নেই, তফাত রয়েছে গ্ল্যামারের দিক থেকেও। সেই সব মিলিয়েই কি এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় আর নিজেকে সামলে রাখতে পারলেন না, ভেঙে পড়লেন জেনিফার উইনজেট (Jennifer Winget)?

ছোটপর্দার এই জনপ্রিয় নায়িকা এক সময়ে বেশ অ্যাক্টিভ থাকতেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে মাঝখানে আচমকাই তিনি বেছে নিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়া ডিটক্সের পথ, পাততাড়ি গুটিয়ে নিয়েছিলেন। বেশ বড় একটা সময় তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়ায় খুঁজে পাওয়া যায়নি। তার কারণটা যে কী, তা সম্প্রতি নিজের একটি ভিডিও মারফত স্পষ্ট করে দিলেন নায়িকা।

জেনিফার এই ভিডিওয় এক দিকে যেমন কোনও ফিল্টার ব্যবহার করেননি, তেমনই তাঁর উপস্থিতিতেও ধরা দেয়নি কোনও নায়িকার মতো ব্যাপার-স্যাপার। খুব সাধারণ পোশাকে একেবারে পাশের বাড়ির মেয়ে হয়ে তিনি ধরা দিয়েছেন ভিডিওয়। ঠিক যে ভাবে পাশের বাড়ির কেউ নিজের মনের কথা খুলে বলেন, সে ভাবেই মুখ খুলেছেন জেনিফারও। ন্যূনতম মেক-আপও দেখা যায়নি তাঁর চেহারায়, বদলে দেখা গিয়েছে চোখে বিষাদের কাজল। তিনি জানিয়েছেন যে মন ভালো নেই!

জেনিফার জানিয়েছেন যে করোনাকাল অন্য অনেকের মতো তাঁকেও মানসিক দিক থেকে বিধ্বস্ত করে দিয়েছে। প্রাণপণে জীবনের ইতিবাচকতার দিকে তাকানোর চেষ্টা করছেন তিনি, কিন্তু দেশের পরিস্থিতি ঠিক পরের মুহূর্তেই দমিয়ে দিচ্ছে তাঁকে। এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্যই তিনি সোশ্যাল মিডিয়ার ধারে-কাছে বড় একটা ঘেঁষছেন না। যতটা পারছেন সময় কাটাচ্ছেন নিজের পরিবারের সঙ্গে, প্রকৃতির মধ্যে নতুন করে খুঁজছেন জীবনের মানে। তাও মাঝে মাঝেই তীব্র বিষাদের মেঘ ঢেকে ফেলছে তাঁর মনের আনন্দের সূর্যকে।

নায়িকা বলতে ভোলেননি, তিনি এই লড়াই চালিয়ে যেতে যেতে ক্লান্ত! আশার কথা- সহজে হাল ছাড়ছেন না জেনিফার, নিজের মুখে স্বীকার করে নিয়েছেন সেই কথাও!

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:
0