corona virus btn
corona virus btn
Loading

Exclusive: ‘‌বাদশাহ সরাসরি কথা বলুন আমার সঙ্গে’, বললেন‌ রতন কাহার

Exclusive: ‘‌বাদশাহ সরাসরি কথা বলুন আমার সঙ্গে’, বললেন‌ রতন কাহার

ফোনে রতন কাহার জানিয়েছিলেন ‘‌এই গান আমার। ১৯৭২ সালে গানটি সৃষ্টি করেছি।

  • Share this:

#‌কলকাতা:‌ বাদশাহর সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চান ‘‌গেন্দা ফুল’‌ গানটির মূল রচয়িতা ও সুরকার রতন কাহার। News18 বাংলাকে ফোনে একথাই জানিয়েছেন শিল্পী। টিম বাদশাহর সঙ্গে এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে তাঁরাও যে কথা বলতে আগ্রহী রতন কাহারের সঙ্গে, সে কথা জানিয়েছেন। এদিকে মঙ্গলবারই প্রথম এই বিষয়ে মুখ খুললেন বাদশা। ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে গেন্দা ফুল গান নিয়ে বিতর্কে নিজের বক্তব্য পেশ করলেন বলিউডের র‌্যাপার কিং। গেন্দা ফুল ইউটিউবে ট্রেন্ডিং হওয়ার পর থেকেই যেমন একদিকে জনপ্রিয় হয়েছে তেমনি সমালোচনারও শিকার হয়েছেন বাদশা। গানের মূল রচয়িতা ও সুরকার রতন কাহারকে যোগ্য স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি এই অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন হয়েছিলেন নেটিজেনরা। পাশে দাঁড়িয়েছেন বিশিষ্ট শিল্পীরাও।

দিন কয়েক আগেই News18 বাংলা কে ফোনে সাক্ষাৎকারে রতন কাহার জানিয়েছিলেন তাঁর ক্ষোভ ও দুঃখের কথা। পাশাপাশি জানিয়েছিলেন নিজের গল্প, নিজের লড়াইয়ের কথা। আর্জি জানিয়েছিলেন বাদশাহ যেন তাঁকে স্বীকৃতি দেন। সেই সঙ্গে মূল গান ‘‌বড়লোকের বিটি লো’‌ গেয়েও শোনান শিল্পী। এদিন ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে বাদশা জানান, এই গানের ইউটিউব ক্রেডিট বা রেকর্ডে কোথাও রতন কাহারের নাম ছিল না। তাই তাঁদের পক্ষে জানা সম্ভব ছিল না এটি তাঁর কথা ও সুর। যখনই তিনি জানতে পারেন এটি বাংলা লোকসংগীত থেকে নেওয়া, তখনই মূল কথার কৃতিত্ব হিসাবে তিনি লিখেছিলেন, ‘‌বেঙ্গলি ফোক মিউজিক’‌। বাদশা সেই সঙ্গে এও জানিয়েছেন, তিনি একজন শিল্পী তাই আন্য শিল্পীর ব্যথা বা অভিমান বুঝতে পারেন। শিল্পীকে কদর করেন তিনি। চেষ্টা করবেন যেভাবেই হোক, যতটাই হোক রতন কাহারের পাশে দাঁড়াতে। আর্থিকভাবে সাহায্য করবেন তিনি।

ফোনে রতন কাহার জানিয়েছিলেন ‘‌এই গান আমার। ১৯৭২ সালে গানটি সৃষ্টি করেছি। মলয় পাহাড়ি গানটা নিয়ে গিয়েছিলেন আকাশবাণীতে। বীরভূমের ভাষা, মাটির সুর। তাই জনপ্রিয় হয়েছিল। ৭৬ সালে স্বপ্না চক্রবর্তী আমার কাছ থেকে গানটা নিয়ে গিয়েছিল। নিজের বলে চালিয়ে দিয়েছিল স্বপ্না চক্রবর্তী। রেকর্ড কোম্পানির কাছে আমি গিয়েছিলাম কথা বলতে । আমাকে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। আমার সঙ্গে আবার এরকম হল। আমি খুবই মর্মাহত, দুঃখিত। আমি খুবই পীড়িত মানুষ। আমার আর ভালো লাগে না।’‌

এতদিনে অবশ্য স্বীকৃতি পাবেন সেই আশাই করছেন লোকশিল্পী রতন কাহার। বাদশাহ যোগ্য সম্মান দেবেন সেই আশাই করছেন তাঁর ভক্তরাও।

DEBAPRIYA DUTTA MAJUMDAR

First published: March 31, 2020, 10:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर