Anil Kapoor: অনিলের করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া মোটেই উচিত হয়নি! সোশ্যাল মিডিয়ায় হঠাৎ এমন খোঁচা দিলেন কেন ছেলে হর্ষ

Anil Kapoor: অনিলের করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া মোটেই উচিত হয়নি! সোশ্যাল মিডিয়ায় হঠাৎ এমন খোঁচা দিলেন কেন ছেলে হর্ষ

অনিলের করোনা ভ্যাকসিন পাওয়া উচিত নয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় খোঁচা দিলেন ছেলে হর্ষ!

করোনা ভ্যাকসিনের সেকেন্ড ডোজ নেওয়ার পর, নিজের Instagram আ্যাকাউন্ট থেকে তার ছবি পোস্ট করেন অনিল।

  • Share this:

 #মুম্বই: অনিল কাপুরের (Anil Kapoor) বয়স কত? খুব বড় ভক্ত না হলে এ প্রশ্নের উত্তর দেওয়া বেশ কঠিন। মুম্বই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ৮০ ও ৯০ দশকের এই সুপারস্টার নিজের অভিনয়ের পাশাপাশি একই রকম ভাবে প্রশংসিত হয়ে থাকেন নিজের ফিটনেসের জন্য। তাঁর শারীরিক সক্ষমতা দেখে তাঁর বয়স আন্দাজ করা সত্যি কঠিন। কেউ বলেন তিনি না কি পঞ্চাশ পেরিয়েছেন সদ্য, আবার কারও মতে তিনি এখনো ঘোরাফেরা করছেন চল্লিশের আশেপাশেই। এসবের মাঝেই ফের একবার বয়স নিয়ে প্রশ্ন উঠল। এবার আঙুল তুললেন নিজের ছেলে হর্ষ বর্ধন কাপুর (Harsh Varrdhan Kapoor)।

View this post on Instagram

A post shared by anilskapoor (@anilskapoor)

ঘটনার সূত্রপাত অনিল কাপুরের একটি পোস্টকে ঘিরে। করোনা ভ্যাকসিনের সেকেন্ড ডোজ নেওয়ার পর, নিজের Instagram আ্যাকাউন্ট থেকে তার ছবি পোস্ট করেন অনিল। সেই পোস্টে লেখেন ' দ্বিতীয় ডোজ নিলাম। কোনও সমস্যা নেই এখানে।' ঘটনার সূত্রপাত হয় এর পর। ওই পোস্টের নিচে অভিনেতা-পুত্র হর্ষ লেখেন 'কী ভাবে দ্বিতীয় ডোজ এখনই পেলে তুমি? পঁয়তাল্লিশ বছরের নিচে মানুষজনের ডোজ নেবার কথা পয়লা মে-র পর থেকে।' এর পরই নানা রকম খুনসুটি শুরু হয় নেট-মাধ্যমে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অজস্র অনিল-ভক্তেরা ওই পোস্টের নিচে নানা রকম মন্তব্য লিখতে শুরু করেন। হর্ষ বর্ধন কাপুরের বক্তব্য সমর্থন করে এক অনুরাগী লেখেন, 'আমারও একই প্রশ্ন। কী ভাবে ভ্যাকসিন পেলেন উনি?' একধাপ এগিয়ে আরেকজন বলেন, 'ওঁর বয়স আঠেরো পেরোয়নি। দয়া করে ওঁকে পঁয়তাল্লিশের কোটায় ফেলবেন না।'

এসব দেখে মজা করার লোভ সামলাতে পারেননি খোদ অনিল কাপুর নিজেও। নিজের ছবিতে নিজেই লেখেন, 'ভাগ্যিস ওরা আমার আধার কার্ড দেখেছিল, নাহলে পুনরায় আমাকে পয়লা মে-র পরে আসতে বলত।'

সম্প্রতি ভারত সরকার আঠেরো বৎসরের উর্ধ্বে ভ্যাকসিনেশনের সু্যোগ তৈরি করেছে পয়লা মে-র পর থেকে৷ একটি বিজ্ঞপ্তিতে কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে আঠেরো বছরের উর্ধ্বে যাঁরা, তাঁরা সকলেই ভ্যাকসিনেশনের সুযোগ পাবেন পয়লা মে-র পর থেকে। এই ভ্যাকসিনেশন পদ্ধতি তৃতীয় দফার ও যথেষ্ট দ্রুতগতির বলেই দাবি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: