কেন্দ্রের বিরুদ্ধে চুপ কেন অমিতাভ ও অক্ষয়! অভিনেতাদের শ্যুটিং বন্ধ করার হুমকি কংগ্রেসের

তাঁর বক্তব্য় এই দুই অভিনেতা পক্ষপাতদুষ্ট। তিনি বলছেন ইউপিএ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন যখন পেট্রলের দাম বাড়ে। তখন অমিতাভ ও অক্ষয় দুজনেই টুইটারে এর বিরুদ্ধে পোস্ট করতেন। কিন্তু এখন তাঁরা কিছুই বলছেন না।

তাঁর বক্তব্য় এই দুই অভিনেতা পক্ষপাতদুষ্ট। তিনি বলছেন ইউপিএ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন যখন পেট্রলের দাম বাড়ে। তখন অমিতাভ ও অক্ষয় দুজনেই টুইটারে এর বিরুদ্ধে পোস্ট করতেন। কিন্তু এখন তাঁরা কিছুই বলছেন না।

  • Share this:

    #মুম্বই: বাড়ছে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম। কিন্তু এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করছেন না অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন ও অক্ষয় কুমার! আর তাই এই দুই অভিনেতাকে হুমকি দিলেন মহারাষ্ট্রের কংগ্রেস নেতা নানা পাটেল। জানালেন, কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে মুখ না খুললে তাঁদের শ্যুটিং বন্ধ করে দেওয়া হবে। উল্টো দিকে ভারতীয় জনতা পার্টি থেকেও দুই অভিনেতার হয়ে কংগ্রেসকে হুঁশিয়ারি দেওয়া হল।

    তাঁর বক্তব্য় এই দুই অভিনেতা পক্ষপাতদুষ্ট। তিনি বলছেন ইউপিএ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন যখন পেট্রলের দাম বাড়ে। তখন অমিতাভ ও অক্ষয় দুজনেই টুইটারে এর বিরুদ্ধে পোস্ট করতেন। কিন্তু এখন তাঁরা কিছুই বলছেন না।

    নানা পাটেল বলেন, "কেন্দ্রে যখন মনমোহন সিং ছিলেন অমিতাভ বচ্চন ও অক্ষয় কুমারের মতো এই বলিউড অভিনেতারা টুইট করে প্রশ্ন তুলতেন যে কী ভাবে দেশে ২৫-৩০ টাকা দাম বাড়ছে পেট্রলের। কিন্তু আজ নরেন্দ্র মোদী সরকার যখন পেট্রলের দাম বাড়িয়ে মানুষকে আঘাত করছে তখন তাঁরা কিছুই বলছেন না।"

    আর এই কারণেই তিনি বলেছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে আওয়াজ না তুললে শ্যুটিং বন্ধ করে দেওয়া হবে। তিনি আরও বলছেন, "আমরা জানতে চাই যে বিজেপির তরফ থেকে এই অভিনেতাদের উপরে কোনও চাপ রয়েছে কি না। আমরা বিষয়টি সম্পর্কে বিশদে জানতে চাই।"

    অন্যদিকে বিজেপি নেতা রাম কদম বলেছেন, "বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন ও অক্ষয় কুমার দুজনেই খুব গুণী ও সম্মানীয় অভিনেতা। আর এখন কংগ্রেস বলছে তারা এই তারকাদের শ্যুটিং করতে দেবেন না এবং তাঁদের ছবিও মুক্তি পেতে দেবে না। ওঁদের অপরাধটা কী আমি কংগ্রেসের কাছে জানতে চাই। দেশের হয়ে টুইট করা কি কোনও অপরাধ? আন্তর্জাতিক কিছু মানুষ দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে আর কংগ্রেস তাদের সমর্থন করছে। আমরা কংগ্রেসকে সাবধান করতে চাই, দেশের জন্য যাঁরা কথা বলেছেন তাঁদের পাশে গোটা দেশ রয়েছে সব সময়ে।"

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: