ড্রাগ মামলায় জামিন পেলেন ভারতী ও তাঁর স্বামী

Bharti and Harsh granted bail

জনপ্রিয় কমেডিয়ান ভারতীর বাড়ি থেকে গাঁজা উদ্ধার করার পরে এনসিবি (NCB) তাকে গ্রেফতার করে৷

  • Share this:

    #মুম্বই: ড্রাগ মামলায় জামিন পেলেন কমেডিয়ান ভারতী সিং ও তাঁর স্বামী হর্ষ লিম্বাচিয়া৷ বিশেষ এনডিপিএস আদালত তাঁদের জামিন মঞ্জুর করেছে। জনপ্রিয় কমেডিয়ান ভারতীর বাড়ি থেকে গাঁজা উদ্ধার করার পরে এনসিবি (NCB) তাকে গ্রেফতার করে৷ এরপর রাত ভর জিজ্ঞাসাবাদ চলে তার স্বামী হর্ষের৷ রবিবার সকালে তাকেও ড্রাগ মামলায় গ্রেফতার করে নারকটিক্স ব্যুরো৷

    মামলার শুনানি চলাকালীন আদালত ভারতী সিং ও হর্ষ লিম্বাচিয়াকে ১৪ দিনের অর্থাৎ ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। সোমবার এনডিপিএসের বিশেষ আদালত এই দুজনের জামিন আবেদন মঞ্জুর করা হয়।

    ভারতী ও হর্ষকে গ্রেফতারের পর থেকে বহু কমেডিয়ানই এই বিষয়ে মতামত দেওয়া শুরু করেছেন। সম্প্রতি, ভারতী ও হর্ষকে গ্রেফতারের বিষয়ে রাজু শ্রীবাস্তব মন্তব্য করেছিলেন এবং এখন জনি লিভারও এই বিষয়ে বক্তব্য রেখেছিলেন। জনি লিভার সঞ্জয় দত্তের উদাহরণ দিয়েছেন এবং তাদের উভয়কেই তাদের ভুল স্বীকার করার পরামর্শ দিয়েছেন। জনি লিভার বলেন - 'দু'জনেরই জেল থেকে বেরিয়ে আসার পরে তাদের বন্ধুদের সাথে কথা বলা উচিত এবং তাদের সবাইকে মাদক সেবন না করার পরামর্শ দেওয়া উচিত।

    ড্রাগ মামলায় হর্ষের হেফাজতের দাবি করা হয়েছিল। আদালতের কাছে হর্ষকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন করে NCB৷ যদিও ভারতীর জেল হেফাজত চাওয়া হয়েছিল। পরে আদালত দু’জনেরই জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়। আপাতত দু’জনের জামিন মিলেছে৷

    ভারতী সিংয়ের স্বামী হর্ষের উপর মাদকদ্রব্য আইন ১৯৮৬ এর ধারা 27A আরোপ করা হয়। অর্থাৎ ড্রাগের ক্ষেত্রে অর্থ ও পরিবহণ দিয়ে সাহায্য করত হর্ষ, এই অভিযোগ আনা হয়েছে৷ আদালতে এনসিবির আইনজীবী অতুল সরপান্দে ভারতী সিং এবং হর্ষের জন্য জেল হেফাজত চেয়েছিলেন। তিনি নিজেই সংবাদমধ্যমকে এই তথ্য দিয়েছিলেন।

    Published by:Pooja Basu
    First published: