বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘যদি দেখি ইন্ডাস্ট্রি’কে এ ভাবে কেউ উপহাস করছে, প্রচণ্ড আঘাত পাই’, জয়া’কে সমর্থন হেমা মালিনীর

‘যদি দেখি ইন্ডাস্ট্রি’কে এ ভাবে কেউ উপহাস করছে, প্রচণ্ড আঘাত পাই’, জয়া’কে সমর্থন হেমা মালিনীর

এ বার মাদক-চক্র ইস্যুতে জয়ার সমর্থনে মুখ খুললেন অভিনেত্রী হেমা মালিনী । যদিও রাজনৈতিক মতাদর্শের দিক থেকে দু’টি আলাদা শিবিরের প্রতিনিধি দুই নায়িকা । তবে ইন্ডাস্ট্রির বিষয়ে একে অপরকে সমর্থন করলেন তাঁরা ।

  • Share this:

#মুম্বই: বলিউড যেন দিনে দিনেই একে অপরকে দোষারোপ আর পাল্টা দোষারোপ করার আদর্শ স্থান হয়ে উঠছে । হয় সবাই সবার বিরোধিতা করছে, অথবা দলবাজি করছে । সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে যেন স্পষ্টতই কতগুলো ক্যাম্পে ভাগ হয়ে গিয়েছে বলি-পাড়া । কঙ্গনা রানাওয়াতের সমর্থকরা একদিকে, আবার তাঁর বিরোধী পক্ষের দলও বেশ পোক্ত । সেখানে সোনম কাপুর, করিনা কাপুর, তাপসী পান্নু, রিচা চাড্ডারা । আবার একটা দল রয়েছে সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ । মুখ কুলুপ এঁটে থাকাই শ্রেয় মনে করছেন তাঁরা ।

এই মুহূর্তে বলিউড উত্তাল হয়েছে মাদক চক্র নিয়ে । মাদক কাণ্ডে জেলে গিয়েছেন সুশান্তের বান্ধবী ও এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত রিয়া ও তাঁর ভাই শৌভিক । গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার, সাংসদে বলিউডের সঙ্গে মাদক যোগ মুখ খোলেন সমাজবাদী পার্টির সাংসদ ও অভিনেত্রী জয়া বচ্চন । মাদক চক্রে গুটি কয়েকজনের যোগসূত্র টেনে এনে গোটা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে কখনওই দোষারোপ করা যায় না, এমন মন্তব্য করেন তিনি । পাশাপাশি, জয়ার বক্তব্য এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে অন্তত ৫ লক্ষ মানুষের পেট চলে । তাই বিজেপি সাংসদ রবি কিষাণ যে ভাবে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে মাদকের যোগ আছে বলে অভিযোগ তুলছেন, তাতে মনে হচ্ছে তিনি যে থালায় খাচ্ছেন, সেখানেই ছিদ্র করছেন।

জয়ার এই বক্তব্যের পরেই তেড়েফুঁড়ে ওঠেন কঙ্গনা । বচ্চন-ঘরণী’কে এক হাত নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন করেন, আজ যদি অভিষেক আত্মহত্যা করতো বা শ্বেতা’কে কেউ ড্রাগস দিত, তাহলেও কি তিনি একই কথা বলতেন ?

কঙ্গনার এই বক্তব্যের পরেই ইন্ডাস্ট্রির অন্য একটি দল জয়ার স্বপক্ষে সালিশি করতে ময়দানে নেমে পড়ে । জয়ার ভিডিও ট্যুইট করেন তাপসী পান্নু, সোনম কাপুররা । এ বার মাদক-চক্র ইস্যুতে জয়ার সমর্থনে মুখ খুললেন অভিনেত্রী হেমা মালিনী । যদিও রাজনৈতিক মতাদর্শের দিক থেকে দু’টি আলাদা শিবিরের প্রতিনিধি দুই নায়িকা । তবে ইন্ডাস্ট্রির বিষয়ে একে অপরকে সমর্থন করলেন তাঁরা ।

বুধবার সর্বভারতীয় একটি সংবাদ মাধ্যমে জয়ার বক্তব্যের প্রেক্ষিতে মুখ খোলেন ৭১ বছরের হেমা। বলেন, ‘‘আমি এই ইন্ডাস্ট্রি থেকে আমার নাম,যশ, খ্যাতি, সম্মান...সব অর্জন করেছি । আমি সকলকে বলতে চাই, বলিউড সত্যিই সুন্দর । একটা সৃজনশীল জায়গা । এটা শিল্প এবং সংস্কৃতির ইন্ডাস্ট্রি । আমার ভীষণ কষ্ট হয় যখন শুনি মানুষ এই ইন্ডাস্ট্রির সম্বন্ধে খারাপ খারাপ মন্তব্য করছে । মাদক চক্র নিয়ে এত কথা বলছে, কিন্তু পৃথিবীর কোথায় এটা হয় না? কিন্তু যদি সত্যিই দাগ লেগে থাকে, সেটা ধুয়ে-মুছে ফেলে এগিয়ে যেতে হবে ।’’

হেমাজি আরও বলেন, ‘‘এখানে কত প্রবাদপ্রতিম শিল্পীদের জন্ম হয়েছে । ম্যাটনি আইডলরা দর্শকদের কাছে ভগবান তুল্য । মানুষ সবসময় ভাবেন, এঁরা সত্যিই অভিনয় করেন, নাকি এঁরাই ভগবান । রাজ কাপুর, দেব আনন্দ, ধর্মেন্দ্রজি, অমিতজি...এঁরা সব এমন ব্যক্তিত্ব, যাঁরা বলিউডকে ভারতীয়দের কাছে অন্যমাত্রায় পৌঁছে দিয়েছিলেন । আমি এটা নিতে পারি না, যখন দেখি অন্য কেউ সেই জায়গাটার উপহাস করছে ।’’

এর সঙ্গে ড্রিম গার্ল যোগ করেন, ‘‘যদি এরকম কিছু এখানে ঘটেও থাকে, তার মানে এই নয় যে ইন্ডাস্ট্রির সবাই খারাপ । নেপোটিজমের স্বার্থে কোনও অভিনেতা-অভিনেত্রীর ছেলে-মেয়ে সিনেমায় এলেই সে সুপারস্টার হয়ে যায় না । ভাগ্য আর প্রতিভাই সবচেয়ে বড় কথা ।’’

Published by: Simli Raha
First published: September 16, 2020, 2:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर