• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • ‘যেখানেই তুমি থাকো......’ সুশান্তের উদ্দেশ্যে ফের ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনায় বসলেন অঙ্কিতা

‘যেখানেই তুমি থাকো......’ সুশান্তের উদ্দেশ্যে ফের ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনায় বসলেন অঙ্কিতা

দেড় মাস কেটে গেল সুশান্ত নেই ! প্রাক্তনের মৃত্যুর পর থেকে আর সর্বসমক্ষে আসেননি অঙ্কিতা । ঈশ্বরের পায়েই যেন তিনি খুঁজে নিয়েছেন নিজের মুক্তি ।

দেড় মাস কেটে গেল সুশান্ত নেই ! প্রাক্তনের মৃত্যুর পর থেকে আর সর্বসমক্ষে আসেননি অঙ্কিতা । ঈশ্বরের পায়েই যেন তিনি খুঁজে নিয়েছেন নিজের মুক্তি ।

দেড় মাস কেটে গেল সুশান্ত নেই ! প্রাক্তনের মৃত্যুর পর থেকে আর সর্বসমক্ষে আসেননি অঙ্কিতা । ঈশ্বরের পায়েই যেন তিনি খুঁজে নিয়েছেন নিজের মুক্তি ।

  • Share this:

    #মুম্বই: নেটিজেনরা বলছেন, কেন সুশান্তকে ছেড়ে দিলেন আপনি? আপনি ছেড়ে না দিলে হয়তো সুশান্ত বেঁচে থাকত ৷ হয়তো আপনার মতো প্রেমিকাই পাশে চেয়েছিলেন সুশান্ত !

    সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতার সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়াল যেন এই শব্দেই ভরিয়ে তুলছেন তাঁর ফ্যানেরা ৷ কারণ, এখনও কেউ বিশ্বাসই করে উঠতে পারছেন না, তাঁদের প্রিয় নায়ক সুশান্ত সিং রাজপুত আর নেই !

    ১৪ জুন গোটা দেশকে হতবাক করে মৃত্যুলোকে পাড়ি দিয়েছেন সুশান্ত সিং রাজপুত ৷ তাঁর জীবনের এরকম পরিণতি এখনও যেন মেনে নিতে পারছে না কেউ ৷ সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত খুন ! তা নিয়ে এখনও রহস্য বেড়েই চলেছে ৷ সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গেই সামনে এসেছে বলিউডের বিভৎস চেহারা ৷ নেপোটিজম বিতর্ক ৷ একের পর এক নাম জড়িয়েছে বলিউডের বিগ স্টারদের ৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় সুশান্তের জন্য ন্যায় চেয়ে নানা ফোরাম ! এরই মধ্যে সময় জলের মতো এগিয়ে গিয়েছে ৷ দেড় মাস কেটে গেল সুশান্ত নেই !

    View this post on Instagram

    HOPE,PRAYERS AND STRENGTH !!! Keep smiling wherever you are

    A post shared by Ankita Lokhande (@lokhandeankita) on

    সুশান্তের মৃত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়া থেকে কার্যত বিদায় নিয়েছিলেন অঙ্কিতা । বহুদিন সর্বসমক্ষে আসেননি । সুশান্তে মৃত্যুর একমাস পর যখন প্রথম পোস্ট করলেন, সেখানেও ছিল প্রাক্তনের জন্য প্রার্থনা । এ বারেও ঈশ্বরের সামনে প্রদীপ জ্বেলে তাঁরই উদ্দ্যেশ্যে প্রার্থনা জানালেন নায়িকা । লিখলেন, ‘আশা, প্রর্থনা আর শক্তি....হাসতে থাকো....যেখানেই তুমি থাকো না কেন ।’’

    Published by:Simli Raha
    First published: