ভুয়ো হুমকি মেসেজ ! সেই সঙ্গে ফাঁস হোটেলে শ্যুটের ছবি ! সমস্যায় বাংলা সিরিয়াল

স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে হোটেলেই শ্যুটিং হচ্ছে। এর পর থেকে ফের ঝামেলা শুরু হয়। কেন হবে এই কাজ তা নিয়ে ঝামেলা হলেও। পরিচালকদের মত কাজ বন্ধ হয়ে গেলে কাউকেই টাকা দেওয়া যাবে না।

স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে হোটেলেই শ্যুটিং হচ্ছে। এর পর থেকে ফের ঝামেলা শুরু হয়। কেন হবে এই কাজ তা নিয়ে ঝামেলা হলেও। পরিচালকদের মত কাজ বন্ধ হয়ে গেলে কাউকেই টাকা দেওয়া যাবে না।

  • Share this:

    #কলকাতা: লকডাউন বেড়ে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েছেন টলিপাড়ার কলাকুশলী থেকে টেকনিশিয়ানসরা। তবে ইতিমধ্যেই বাড়ি থেকে কাজ করা শুরু করেছেন অভিনেতারা। নিজেদের মোবাইলে শ্যুট করে পাঠাচ্ছেন তাঁরা। তা এডিট করে বসিয়ে চালানো হচ্ছে শ্যুটিং। এভাবেই এগোচ্ছে 'রানি রাসমনি' থেকে শুরু করে 'কৃষ্ণকলি', 'মিঠাই', 'বরণ'-এর মতো সব জনপ্রিয় ধারাবাহিকের শ্যুটিং। এর ফলে সিরিয়াল এগোচ্ছে। আর কাজ করতে পারছে অভিনেতারা। কিন্তু বাড়ি থেকে শ্যুটিং হলে আর দরকার পড়ছে না টেকনিশিয়ানসদের। তাঁদের কাজ নেই, রোজগার নেই। কিন্তু শিল্পীদের রোজগার থেকে যাচ্ছে। যার বিরোধিতা করে ইতিমধ্যেই আর্টিস্ট ফোরাম আর ফেডারেশনের লড়াই তুঙ্গে।

    সোমবার আর্টিস্ট ফোরাম সাংবাদিক বৈঠক করে ‘বাড়ি থেকে শ্যুটিং’-এ সমর্থন জানানোর পরেই তার তীব্র বিরোধিতা করেন ফেডারেশনের সভাপতি স্বরূপ বিশ্বাস। তিনি বলেছেন, শ্যুট ফ্রম হোম হলে অনেকেই বঞ্চিত হবেন। আর তা কিছুতেই মেনে নেবে না ফেডারেশন। খুব শীঘ্রই তাঁরা বিরোধিতা করে বিবৃতি প্রকাশ করবেন।

    মঙ্গলবার রাতেই ১৫ পাতার বিবৃতি জমা দেয় ফেডারেশন। যেখানে বলা হয়, "শ্যুট ফ্রম হোম'-এর নাম করে হোটেল, বাড়ি ভাড়া নিয়ে শ্যুটিং হচ্ছে। বিষয়টি তদন্তর জন্য কমিটি গঠন করেছে ফেডারেশন। এই সময়ে বাড়িতে থাকার কথা। শ্যুটিং বন্ধ মানে স্টুডিওপাড়া শুধু নয়, অন্য কোথাও শ্যুটিং হতে পারবে না। সেখানে হোটেলে কি করে শ্যুটিং হয়? বেশ কিছু সিরিয়ালে হোটেলের দৃশ্য ধরা পড়েছে। তবে এই অভিযোগ মানতে নারাজ পরিচালক থেকে চ্যানেল কতৃপক্ষ। এর মধ্যে ফাঁস হল বেশ কিছু ছবি। এবং ভিডিও যা দেখে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে হোটেলেই শ্যুটিং হচ্ছে। এর পর থেকে ফের ঝামেলা শুরু হয়। কেন হবে এই কাজ তা নিয়ে ঝামেলা হলেও। পরিচালকদের মত কাজ বন্ধ হয়ে গেলে কাউকেই টাকা দেওয়া যাবে না। তাই তাঁরা চেষ্টা করছেন সিরিয়াল যেন বন্ধ না হয়। সকলকেই পুরো টাকা দিতে চান তাঁরা। কাউকেই বাদ দিতে চান না। কিন্তু এদিকে অভিযোগ উঠছে অনেক কম টেকনিশিয়ানস দিয়ে হোটেলে শ্যুটিং চলছে। হাতে নাতে ধরা হয় বেশ কয়েকটি সিরিয়ালের শ্যুটিং।

    তবে এর মধ্যেই আবার নতুন ঝামেলা বাঁধাল ফেডারেশনের নামে আসা ভুয়ো হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ। সকাল থেকেই হোয়াটসঅ্যাপে ঘুরছে মেসেজ, "বাড়ি থেকে ধারাবাহিকের পর্ব শ্যুট করার প্রক্রিয়ায় কলাকুশলীরা যদি অংশগ্রহণ করেন তা হলে তাঁদের সদস্যপদ বাতিল হবে বা তাঁদের বিরুদ্ধে ‘কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা’ নেওয়া হবে।" এই মেসেজ ছড়ানোর পড়েই ফের নতুন করে তরজা শুরু হয়। তবে ফেডারেশন জানিয়েছে, তাঁরা এমন কোনও মেসেজ কোথাও পাঠাইনি। বা এমন কিছুই কাউকে বলেনি। অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যে। স্বাভাবিক প্রশ্ন জাগছে, এই ঝামেলার জেরে শ্যুটিং বন্ধ না হয়ে যায়।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: