বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

অমরিশ পুরি: মৃত্যুবার্ষিকীতে ফিরে দেখা অভিনেতার কিংবদন্তি ৫ চরিত্র!

অমরিশ পুরি: মৃত্যুবার্ষিকীতে ফিরে দেখা অভিনেতার কিংবদন্তি ৫ চরিত্র!

বেঁচে থাকলে এখন তাঁর বয়স হত ৮৯ বছর। অবশ্য ২০০৫ সালের ১২ জানুয়ারি অমরিশ পুরির (Amrish Puri) মৃত্যু ভক্তদের কাছে একটা তারিখ ছাড়া আর কিছুই নয়।

  • Share this:

#মুম্বই: বেঁচে থাকলে এখন তাঁর বয়স হত ৮৯ বছর। অবশ্য ২০০৫ সালের ১২ জানুয়ারি অমরিশ পুরির (Amrish Puri) মৃত্যু ভক্তদের কাছে একটা তারিখ ছাড়া আর কিছুই নয়। তাঁর অভিনীত চরিত্রগুলোর মধ্যে দিয়ে তিনি এখনও যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ভাবেই বর্তমান ভারতীয় ছায়াছবির ইতিহাসে। আর শুধু বলিউড-ই বা কেন! সমুদ্র পেরিয়ে হলিউডেও পৌঁছে গিয়েছিল তাঁর খ্যাতি। ১৯৮২ সালের রিচার্ড অ্যাটেনবরো (Richard Attenborough) গান্ধী (Gandhi) বা ১৯৮৪ সালের স্টিভেন স্পিলবার্গ (Steven Spielberg) পরিচালিত ইন্ডিয়ানা জোনস অ্যান্ড দ্য টেম্পল অফ ডুম (Indiana Jones and the Temple of Doom)- পুরির অভিনয় ভোলা যায় না। সত্যি বলতে কী, এটাই ছিল পুরির প্রতিভার সব চেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য। গমগমে কণ্ঠস্বর আর স্ক্রিন অ্যাপিয়ারেন্স দিয়েই দর্শকের মনে প্রথম দেখাতেই একটা জায়গা করে নিতেন তিনি। এর পর সেই জায়গা চিরস্থায়ী হয়ে যেত অভিনয়ের গুণে। সাধে কী আর পৃথ্বী থিয়েটারে নাটকের মাধ্যমে অভিনয় শুরু করে ৩৮ বছরের কেরিয়ারে ৪৫০ ছবিতে অভিনয়ের রেকর্ড গড়ে ফেলেন তিনি! মৃত্যুবার্ষিকীতে পুরি অভিনীত এই বিশালসংখ্যক ছবির মধ্যে থেকে ফিরে দেখা যাক ৫ কিংবদন্তি চরিত্রকে!

মোগাম্বো ১৯৮৭ সালে মুক্তি পেয়েছিল শেখর কাপুর (Shekhar Kapoor) পরিচালিত মিস্টার ইন্ডিয়া (Mr India)। চড়া মেক-আপ, হেভিওয়েট কস্টিউম, তার সঙ্গে মোগাম্বো খুশ হুয়া-র জনপ্রিয় সংলাপ- পুরি অভিনীত চরিত্রের কথা বললেই সবার আগে মোগাম্বোর কথা মনে পড়ে যায়। চৌধরি বলদেব সিং ১৯৯৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল আদিত্য চোপড়ার (Aditya Chopra) পরিচালনায় দিলওয়ালে দুলহনিয়া লে যায়েঙ্গে (Dilwale Dulhania Le Jayenge)। নায়িকার বাবার ভূমিকায় পুরির অভিনয় ছবিটিকে এক অন্য মাত্রা দেয়। তাঁকে ছাড়া এই ছবির কথা কল্পনাও করা যায় না। ঠাকুর দুর্জন সিং ১৯৯৫ সালেই মুক্তি পেয়েছিল রাকেশ রোশন (Rakesh Roshan) পরিচালিত করণ অর্জুন (Karan Arjun)। এই ছবির যাবতীয় ঘটনা নিয়ন্ত্রিত হয়েছে পুরি অভিনীত খলনায়কের চরিত্র ঘিরে, সেটা বললে অত্যুক্তি হয় না! দুর্গাপ্রসাদ ভরদ্বাজ নামটা মনে করা কঠিন বটে! কিন্তু কমল হাসন (Kamal Haasan) পরিচালিত ১৯৯৭ সালের চাচি ৪২০ (Chachi 420) ছবির কথা বললে পুরি অভিনীত এই চরিত্রকে বাদ দেওয়া যায় না। তাঁর জন্যই চাচির আবির্ভাব তো বটেই, পাশাপাশি ভারতীয় ছবির কৌতূক অভিনয়ের ক্ষেত্রেও একটি কিংবদন্তি চরিত্র এই দুর্গাপ্রসাদ ভরদ্বাজ। কিশোরীলাল ১৯৯৭ সালে মুক্তি পেয়েছিল সুভাষ ঘাইয়ের পরিচালনায় পরদেশ (Pardes)। ছবিতে পুরি অভিনীত চরিত্রটি অনেকটাই তৈরি হয়েছিল দিলওয়ালে দুলহনিয়া লে যায়েঙ্গে-র চৌধরি বলদেব সিংয়ের দেশপ্রেমের দিকটায় লক্ষ্য রেখে। কিন্তু অভিনয়ের গুণে দুই চরিত্রকে আলাদা ভাবে ভারতীয় ছবির ইতিহাসে প্রাণ দিয়েছিলেন পুরি!

Published by: Akash Misra
First published: January 12, 2021, 12:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर