বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

এই বুড়ো, ঘুমিয়ে পড়ো! সোশ্যাল মিডিয়া করার জন্য এ সবও শুনতে হয় বিগ বি-কে!

এই বুড়ো, ঘুমিয়ে পড়ো! সোশ্যাল মিডিয়া করার জন্য এ সবও শুনতে হয় বিগ বি-কে!
সোশ্যাল মিডিয়ায় বুঁদ বিগ বি।

দিনের যে কোনও সময় হোক বা মধ্যরাত, বিগ বি ট্যুইট করতে ভোলেন না।

  • Share this:

সময়ের সঙ্গে কী ভাবে তাল মিলিয়ে চলতে হয়, সেটা বিগ বি অমিতাভ বচ্চনের (Amitabh Bachchan) চেয়ে ভালো কেউ জানেন না। তাঁর হাঁটুর বয়সি তারকাদের পিছনে ফেলে কী ফেসবুক (Facebook), কী ট্যুইটার (Twitter) আর কী ইন্সটাগ্রাম (Instagram), সবেতেই তিনি টেক্কা দিয়ে চলেছেন। দিনের যে কোনও সময় হোক বা মধ্যরাত, বিগ বি ট্যুইট করতে ভোলেন না। কখনও তাঁর আগামী সিনেমার ঝলক, কখনও হোয়াটসঅ্যাপ (WhatsApp) থেকে পাওয়া কোনও মজাদার পোস্ট আবার কখনও কোনও মন ভালো করে দেওয়া উক্তি তিনি ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেন। শেয়ার করেন পরিবারের ছবিও।

কিন্তু ভারতের মেগাস্টারের জন্যও এই ভাবে যোগাযোগের সেতু তৈরি করা সহজ ছিল না। মাঝে মাঝে বর্ষীয়ান অভিনেতাকেও ট্রোলড হতে হয়েছে। সম্প্রতি কৌন বনেগা ক্রোড়পতি শোয়ে লিপি রাওয়াত নামের এক প্রতিযোগীর সঙ্গে প্রাণখোলা আড্ডায় মাতলেন বলিউডের শাহেনশা। লিপি জানতে চান অমিতাভের সারাদিনের ব্যস্ত দিনপঞ্জি সম্পর্কে। বিগ বি জানান তাঁর বাড়ি থেকে কেবিসি-র সেটে আসতে এক থেকে দেড় ঘণ্টা সময় লাগে। আবার যাওয়ার সময় অতিরিক্ত ট্রাফিকের জন্য আরও দু’ঘণ্টা লাগে। এর ফাঁকেই তিনি মোবাইলে কিছু দেখে নেন বা শুনে নেন।

প্রতিযোগী লিপিকেও ঘুরিয়ে প্রশ্ন করেন কেবিসির হোস্ট। জানতে চান যে লিপি সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন কি না। লিপি বলেন তিনিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আছেন এবং বিগবিকে অনুসরণও করেন তিনি। লিপি বিস্মিত হয়ে যান যখন রাত তিনটের সময়েও বচ্চন স্যারের পোস্ট দেখেন। এই বিষয়ে লিপিকে খোলসা করলেন অমিতাভ। তিনি বলেন শুটিং শেষে বাড়ি ফিরে জামাকাপড় ছেড়ে খেতে বসেন তিনি। তার পর পেশাদারি কিছু মেল ও অন্যান্য জিনিস চেক করেন। সব সেরে তবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আসেন। আর সেই জন্যই এত দেরি হয়ে যায়।

লিপি হাসতে হাসতে বিগ বিকে জানান যে শুধু তরুণ-তরুণীরা নয়, বর্ষীয়ান অভিনেতাও যে ভোর রাত পর্যন্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় মজে থাকেন সেটা দেখে তাঁর ভালো লাগছে।

মজার ছলে মহাতারকা বলেন যে রাত জাগার জন্য বকাঝকাও খান তিনি নেটিজেনদের থেকে। 'এই বুড়ো, ঘুমিয়ে পড়' বলে টিটকিরিও দেন অনেকে!

Written By: Doyel

Published by: Arka Deb
First published: December 23, 2020, 4:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर