পদ্মাবৎ বিতর্ক আতঙ্কে রেখেছে বলিউডকে, অক্ষয় কুমারের পৃথ্বীরাজ কী পদক্ষেপ করছে?

পদ্মাবৎ বিতর্ক আতঙ্কে রেখেছে বলিউডকে, অক্ষয় কুমারের পৃথ্বীরাজ কী পদক্ষেপ করছে?

পদ্মাবত বিতর্ক আতঙ্কে রেখেছে বলিউডকে, অক্ষয় কুমারের পৃথ্বীরাজ কী পদক্ষেপ করছে?

পরিচালক সবার প্রথমেই সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি আপন মনের মাধুরী মিশায়ে ছবির চিত্রনাট্য রচনা করেননি

  • Share this:

#মুম্বই: ২০১৮ সালের করাল স্মৃতি এখনও ভুলতে পারেনি বলিউড! সঞ্জয় লীলা বনশালির (Sanjay Leela Bhansali) ম্যাগনাম ওপাস পদ্মাবত (Padmaavat) মুক্তি পেয়েছিল সেই বছর। আর তার সঙ্গে সঙ্গেই মুক্তি পেয়েছিল সীমাহীন রাজনৈতিক তাণ্ডব। ছবি যে সব প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিল, তার বেশ কয়েকটি ভাঙচুর করেছিল রাজপুত কর্নি সেনা। তাদের দাবি ছিল যে ছবিতে রানি পদ্মিনীর চরিত্র ভুল ভাবে চিত্রায়িত করা হয়েছে। পদ্মিনী রাজস্থানের লৌকিক দেবী, তাঁর চারিত্রিক অবমাননা অতএব সহ্যের প্রশ্ন ওঠে না! শুধু তাই নয়, নানা জায়গায় প্রতিবাদে পোড়ানো হয়েছিল গাড়ি, হামলা চলেছিল স্কুলে, হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছিল নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোনকে (Deepika Padukone)। এই ভয়াল ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না হয়, সেই লক্ষ্যে আগে থেকেই মুখ খুলেছেন পৃথ্বীরাজ (Prithviraj) ছবির পরিচালক চন্দ্রপ্রকাশ দ্বিবেদী (Chandraprakash Dwivedi)।

পরিচালক সবার প্রথমেই সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে জানিয়ে দিয়েছেন যে তিনি আপন মনের মাধুরী মিশায়ে ছবির চিত্রনাট্য রচনা করেননি। দ্বিবেদীর বক্তব্য- এই ছবির চিত্রনাট্য তৈরি করা আর প্রত্নতাত্ত্বিক খননকার্যের মধ্যে না কি কোনও পার্থক্য নেই! দিনের পর দিন এই ছবির চিত্রনাট্য তৈরির জন্য নানা বইয়ের পাতা উল্টেছেন দ্বিবেদী, খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে নোট নিয়েছেন সেই সময়ের জীবনযাত্রার। বুঝতে চেষ্টা করেছেন যে সেই সময়ের মানুষের আবেগ কী রকম ভাবে পরিচালিত হত! তাঁর কথায়- এই ছবির চিত্রনাট্য তৈরি করতে গিয়ে তিনি যেন একরকম সেই সময়ের চরিত্রদের সঙ্গে কথা বলেছেন!

তবে বিতর্ক এড়াতে বনশালির মতো দ্বিবেদীও প্রাচীন কবিদের লেখাকে আশ্রয় করেছেন এবং সে কথা জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। তিনি বলেছেন যে মূলত মধ্যযুগের কবি চাঁদ বরদাইয়ের লেখা পৃথ্বীরাজ রাসো কাব্যগ্রন্থটিই তাঁর ছবির চিত্রনাট্যের মূল অনুপ্রেরণা। এই বইতে যে ভাবে উঠে এসেছে পৃথ্বীরাজ এবং তাঁর মহিষী সংযুক্তার কথা, যে ভাবে উঠে এসেছে পৃথ্বীরাজের রাজনৈতিক সংগ্রামের কাহিনি, তার কোনও কিছুই তিনি পরিবর্তন করেননি। অর্থাৎ সরাসরি না বললেও দ্বিবেদীর বক্তব্য সাফ- ঐতিহাসিক তথ্য বিকৃতির অভিযোগ তাঁর ছবির বিরুদ্ধে আনা যাবে না!

যশ রাজ ফিল্মস প্রযোজিত এই ঐতিহাসিক ড্রামায় অক্ষয় কুমারকে (Akshay Kumar) দেখা যাবে পৃথ্বীরাজ চৌহানের চরিত্রে। আর তাঁর মহিষী সংযুক্তার চরিত্রে অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে বলিউডে কদম রাখছেন ২০১৭ সালের সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় মিস ওয়ার্ল্ড খেতাবজয়ী মানুশি চিল্লার (Manushi Chhillar)।

Published by:Rukmini Mazumder
First published: