পরের বছর স্বাধীনতা দিবসে অক্ষয়ের ‘ক্র্যাক’ !

ফিউচার প্ল্যানিংয়ে একেবারে পাকা হয়ে উঠেছেন অক্ষয় কুমার ৷ তাই তো এই স্বাধীনতা দিবসের আগে ‘রুস্তম’ মুক্তি পেয়ে সবে বক্স অফিসে

ফিউচার প্ল্যানিংয়ে একেবারে পাকা হয়ে উঠেছেন অক্ষয় কুমার ৷ তাই তো এই স্বাধীনতা দিবসের আগে ‘রুস্তম’ মুক্তি পেয়ে সবে বক্স অফিসে

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #মুম্বই: ফিউচার প্ল্যানিংয়ে একেবারে পাকা হয়ে উঠেছেন অক্ষয় কুমার ৷ তাই তো এই স্বাধীনতা দিবসের আগে ‘রুস্তম’ মুক্তি পেয়ে সবে বক্স অফিসে জমিয়ে বসেছে ৷ আর অন্যদিকে অক্ষয় কুমার একেবারে রেডি তাঁর পরের ছবি ‘ক্র্যাক’-এর প্রোমোশনের জন্য ৷

    ব্যাপারটা হল, সম্প্রতি অক্ষয় কুমার নিজের ট্যুইটারে আপলোড করলেন পরিচালক নীরজ পাণ্ডের সঙ্গে চতুর্থ ছবির পোস্টার ৷ ছবির নাম ‘ক্র্যাক’ ৷ ছবিটি মুক্তি পাবে ২০১৭ সালের স্বাধীনতা দিবসে ৷

    বলিউডের ফিল্ম মহল মনে করছেন, মনোজ কুমারের পর অক্ষয় কুমারই হতে চলেছেন বলিউডের ভরত কুমার ৷ কয়েক বছরে অক্ষয়ের ট্র্যাক রেকর্ড দেখলে সহজেই বোঝা যাবে অক্ষয়ের ঝুলিতে রয়েছে বেশিরভাগ দেশাত্ববোধক ছবি ৷ ‘বেবি’, ‘এয়ারলিফ্ট’, ‘হলিডে’, ‘গব্বর’৷ আর এবার সেই নীরজ পাণ্ডের সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘ক্র্যাক’ ৷

    ছবির পোস্টার দেখে সহজেই বোঝা যায় এই ছবির গল্পেও রয়েছে দেশপ্রেমের ছাপ ৷ ছবির পোস্টারটি আপলোড করে অক্ষয় ট্যুইটারে লিখেছেন, ‘নীরজের সঙ্গে আবার তৈরি নতুন ছবি নিয়ে ৷ আপনাদের ভালোবাসা চাই !’

    ‘স্পেশাল ছাব্বিশ’ থেকে নীরজ ও অক্ষয়ের বন্ধুত্বের শুরু ৷ তারপর ‘বেবি’, ‘এয়ারলিফ্ট’ ও এবার ‘রুস্তম’ ৷ নীরজ পাণ্ডে ও অক্ষয় কুমারের জুটি বক্স অফিসেও তুমুল সাফল্য পেয়েছে ৷ এই জুটিকে অনেকেই মনে করছেন সেরা ৷

    অক্ষয় ও নীরজের ‘রুস্তম’কে বক্স অফিসে লড়তে হয়েছে আশুতোষ গোয়ারিকর ও হৃত্বিক রোশনের ‘মহেঞ্জো দারো’র সঙ্গে ৷ তবে মুক্তি পাওয়ার প্রথম দিন থেকেই বক্স অফিসে অনেকটা এগিয়ে অক্ষয়ের ‘রুস্তম’ ৷ সেদিক থেকে অনেকটা পিছিয়ে পড়েছে আশুতোষের পিরিয়াড ছবি ‘মহেঞ্জো দারো’ ৷

    First published: