'কৃষকদের নিয়ে কেন কথা বলছেন না?' অজয় দেবগনের গাড়ি আটকে প্রশ্ন যুবকের !

'কৃষকদের নিয়ে কেন কথা বলছেন না?' অজয় দেবগনের গাড়ি আটকে প্রশ্ন যুবকের !

গ্রেফতার করা হয়েছে ওই যুবককে।

গ্রেফতার করা হয়েছে ওই যুবককে।

  • Share this:

    #মুম্বই: দেশে একদিকে চলছে ভোট, জোট, রাজনীতি। তো অন্যদিকে এখনও নিজেদের দাবি নিয়ে রাত জাগছেন দেশের কৃষকরা। কৃষক আন্দোলন নিয়ে তেমন কোনও গতিবিধি চোখে পড়ছে না। দাবি জানাতে জানাতেই মৃত্যু হয়ে যাচ্ছে কৃষকদের, তবুও কোথাও কেউ কিচ্ছুটি করছে না। সমাজের অনেকেই তাঁদের হয়ে কথা বলছেন। অনেকেই তাঁদের পাশে থেকেছেন। যেমন সোনু সুদ, স্বরা ভাস্করের মতো মানুষদের তাঁদের হয়ে কথা বলতে দেখা গিয়েছে। পপ গায়িকা রিহানকেও আমাদের দেশের কৃষকদের হয়ে ট্যুইট করতে দেখা গিয়েছে। তবে আভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশের কাউকে নাক গলাতে দেখে অনেকেই প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। কিন্তু কৃষকদের হয়ে কথা বলেছেন খুব কম সেলেবরাই।

    শোনা গিয়েছে অজয় দেবগন, অক্ষয় কুমারেরা গেরুয়া ঘনিষ্ট। আর তার জেরেই আজ মঙ্গলবার সকালে এক সর্দারজি গাড়ি আটকে দেন অজয় দেবগনের। সেই সর্দারজির বয়স বেশি নয়। সকালে অজয় তাঁর ছবির শ্যুটিংয়ের জন্য যাচ্ছিলেন গোরেগাওয়ের ফিল্ম সিটিতে। ঠিক তার আগেই অজয়ের গাড়ি আটকে দেন এক যুবক। সে পঞ্জাবের ছেলে। তাঁর পরিবার কৃষক আন্দোলনে সামিল। সে নিজে গাড়ি চালায় মুম্বইতে। ওই যুবকের নাম রাজদ্বীপ সিং। সে অজয়ের গাড়ি আটকে বলতে থাকে , ওই দেখুন গাড়িতে অজয় দেবগন। তারপর সেই যুবক প্রশ্ন করতে থাকেন, আপনারা দেশের সেলেব। আপনারা সমাজের মুখ। আর আপনারা কেন কেউ কিছু বলছেন না কৃষক আন্দোলন নিয়ে। চোখে পড়ছে না কৃষকদের যন্ত্রণা? একটা ট্যুইট করেও কেন প্রশ্ন তোলেননি? আর এই কৃষানরাই কিন্তু আপনাদের রোজকার খাওয়ারের রুটির জোগান দেয়। ভুলে গেছেন সে কথা?' এর পর সেখানে লোক জমায়েত হয়ে যায়। এরপর দিনদোষি পুলিশ স্টেশন থেকে পুলিশ এসে অজয়কে উদ্ধার করে ফিল্ম সিটিতে ছেড়ে দেয়। আর ওই যুবককে গ্রেফতার করে।

    যারা প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন তাঁরা বলেন, ওই যুবককে ছেড়ে দেওয়া হোক। কি দোষ করেছে সে? সে তো সঠিক প্রশ্ন করেছে। আর এটাই তাঁর দোষ হয়ে গেল। যুবকের বিরুদ্ধে ৫০৪, ৫০৬ ও ৩৪১ ধারায় মামলা করে পুলিশ। কাল কোর্টে তোলা হবে তাঁকে। যুবকের পক্ষের উকিলকেও তৈরি রেখেছেন যুবকের দলে থাকা সঙ্গীরা।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: