corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভক্তদের জন্য বড় খবর ! সাংসদ হওয়ার পরে ফের শ্যুটিং ফ্লোরে ফিরছেন মিমি চক্রবর্তী

ভক্তদের জন্য বড় খবর ! সাংসদ হওয়ার পরে ফের শ্যুটিং ফ্লোরে ফিরছেন মিমি চক্রবর্তী
মিমি চক্রবর্তী, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, সংগৃহীত ছবি ৷

দর্শকদের অপেক্ষার পালা এবার শেষ হতে চলেছে

  • Share this:
DEBAPRIYA DUTTA MAJUMDAR #কলকাতা: বড় পর্দায় ফের ফিরছেন যাদবপুরের মিমি চক্রবর্তী । এস ভি এফ এর ব্যানারে মিমির নতুন ছবির নাম ড্রাকুলা স্যার। তার শেষ ছবি ছিল মন জানে না । সাংসদ হওয়ার পাশাপাশি বেশ কিছুদিন ধরেই ব্যস্ত ছিলেন তার প্রথম মিউজিক সিঙ্গল, অ্যালবাম নিয়েই। অনেক দিন ধরেই নানা ছবির কথা শোনা গেলেও পরিচালক‌ দেবালয়ের এই ছবির মাধ্যমে ফের লাইট ক্যামেরা অ্যাকশনের দুনিয়ায় ফিরছেন মিমি । এই ছবির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য। এক প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষকের ভুমিকায় অভিনয় করছেন অনির্বাণ, যার নাম রক্তিম। সামনের দাঁত দুটি লম্বা হওয়ায় সবাই তাকে ডাকে ড্রাকুলা স্যার বলে। এটা কি তাহলে কোনো ভৌতিক কাহিনি অবলম্বনে তৈরি ? পরিচালক স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন কোনো ভূতের গল্প তিনি বলছেন না , এটি একটি সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার, যাতে থ্রিল কম, দুঃখ বা বিষাদ বেশি। প্রাথমিক শিক্ষক রক্তিমের কথাতেই উঠে আসে ১৯৭১ এর আখ্যান এর কথা, যার সঙ্গে জড়িয়ে আছে সেও। জড়িয়ে আছে মঞ্জরী, যে চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী ও সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। এক নিঃসঙ্গ, বিষন্ন নারী চরিত্র মঞ্জরী। পরিচালক দেবালয়ের দাবি, মিমির এই দিকটা কখনো পর্দায় তুলে ধরা হয়নি। মিমি নিজেও এই ধরনের চরিত্রে অভিনয় করার প্রস্তাব পেয়ে উত্তেজিত। তাই এক কথাতেই হ্যাঁ করেছেন।
ড্রাকুলা স্যার বাঙালি ড্রাকুলার গল্প খোঁজার জার্নি যার না আছে ঘোড়ার গাড়ি, না আছে ক্যাসল। ১০ বছর আগেই এই গল্পটি লিখেছিলেন দেবালয় । পরিচালকের কথায় ' ড্রাকুলা আমার খুব প্রিয় চরিত্র। কিন্তু আমার কাছে সে ভয়ের নয়। তাকে একা ও দুঃখী ই লাগে আমার। একটা বাঙালি ড্রাকুলার গল্প বলতে চেয়েছি এবং সে সেই ড্রাকুলা কেন হয়ে ওঠে ও সেটা হয়ে উঠতে গিয়ে তার নিজেকে মিথ বানানোর জন্য কি করতে হয়। সেই থেকেই হয়ে ওঠে গল্পটা।' জানুয়ারি মাসের ১০ তারিখ থেকে শুরু হবে ছবির শুটিং। ১৯৭৯ সালে মুক্তি পাওয়া নসফেরাতু দ্য‌ ভ্যামপায়ার বা ফ্রান্সিস ফোর্ড কপোলার ড্রাকুলা দেবালয়ের পছন্দের । এছাড়াও শ্যাডো‌ অফ দ্য ভ্যামপায়ার ও‌ ১৯৩১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ড্রাকুলায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করা বেলা লুগসিও তার বেশ পছন্দের। বিদায় ব্যোমকেশের পর দেবালয়ের ড্রাকুলা স্যার কতটা দর্শকের পছন্দ হয় নতুন বছরে, তার দিকেই থাকবে নজর ।
First published: December 27, 2019, 8:50 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर