corona virus btn
corona virus btn
Loading

রিয়া চক্রবর্তীর ছোটবেলার বান্ধবী সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার, চাপ দিয়েই শ্রুতি মোদিকে পদ পাইয়েছিলেন

রিয়া চক্রবর্তীর ছোটবেলার বান্ধবী সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার, চাপ দিয়েই শ্রুতি মোদিকে পদ পাইয়েছিলেন
রিয়া চক্রবর্তী ৷ ফাইল ছবি ৷

গভীর ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত পাচ্ছেন তদন্তকারী আধিকারিকেরা

  • Share this:

#মুম্বই: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তভার ইতিমধ্যেই সিবিআই গ্রহণ করেছে, তদন্ত শুরু করেছিল আগেই তারপর থেকেই সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে জেরা করার পরেই ড্রাগচক্র সংক্রান্ত বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে ৷ জানতে পারা গিয়েছে রিয়া ড্রাগ চক্রের একজন সক্রিয় সদস্য ৷ এরপরেই এনসিবি গ্রেফতার করেছে রিয়াকে ৷ তারপর থেকেই রিয়ার আপাতত মুম্বইয়ের বাইকুলা জেল ৷

এর মাঝেই বড় তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে একদা সুশান্তের ম্যানেজার শ্রুতি মোদির সঙ্গে রিয়ার পুরনো সম্পর্কের কথা ৷ সূত্রের খবর বহু আগেই থেকে রিয়া ও শ্রুতি মোদি একে অপরকে চিনতেন ৷ এমনকি জানতে পারা গিয়েছে শ্রুতি ও রিয়া পরস্পরের বন্ধু ছোটবেলা থেকেই ৷ সুশান্ত সিং রাজপুত শ্রুতি মোদিকে প্রথমে ম্যানেজার রাখতে চাননি কিন্তু পরবর্তীকালে রিয়া সুশান্তকে চাপ দিয়ে শ্রুতি মোদিকে নিজের ম্যানেজার করতে বাধ্য করেন ৷ এমনকি এক আইনজীবী মারফৎ শ্রুতিকে নিয়োগ করা হয়েছিল, যেখানে কোনও আইনজীবী এমন ধরনের নিয়োগ করতে পারেন না ৷

এমনও জানতে পারা গিয়েছে রিয়া ও শৌভিক ড্রাগচক্রের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতেন ও কেনাবেচা করতেন এই খবরও রাখতেন রিয়া ৷ এই বিষয়টির সঙ্গে সম্পূর্ণ ভাবে রিয়া যুক্ত ছিলেন ৷ সুশান্তের কাছ থেকে চাকরি ছাড়ার পরে রিয়া ও অন্য ড্রাগচক্রের সদস্যদের সঙ্গে সর্বদা যোগাযোগ রাখতেন ৷ এই খবর পেয়ে সিবিআই শ্রুতি মোদির ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে ৷ ড্রাগ মাপিয়াদের সঙ্গে একাধিক কথাবার্তা ও চ্যাটের রেকর্ড পাওয়া গিয়েছে ৷

 সুশান্তের যে ১৫ কোটি টাকা তছরুপের অভিযোগ করেছিলেন সেই ১৫ কোটি টাকা শ্রুতি মোদির বাবার সংস্থায় বিনিয়োগ করার মত গুরুতর অভিযোগ উঠেছে ৷ এক বিবৃতিতে শ্রুতি মোদির আইনজীবী জানিয়েছেন রিয়া ও শ্রুতি দু'জনেই কলকাতায় মেয়ে পরবর্তীকালে তাঁদের আলাপ হয়েছিল ৷ শ্রুতির ড্রাগচক্রের বিষয়ে তিনি জানেনা বলেই জানিয়েছেন ৷ এই বিষয়ে এনসিবি তদন্ত করছে মামলাটি যতক্ষণ আদালতে না উঠছে ততক্ষণ তিনি কোনও মন্তব্য করবেন না ৷

Published by: Arjun Neogi
First published: September 17, 2020, 12:44 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर