চলছিল যৌন দৃশ্যের শ্যুটিং! পর্নগ্রাফি বানাতে গিয়ে গ্রেফতার মডেল ও বলি পরিচালক !

চলছিল যৌন দৃশ্যের শ্যুটিং! পর্নগ্রাফি বানাতে গিয়ে গ্রেফতার মডেল ও বলি পরিচালক !
Representative Image

অশ্লীল দৃশ্যের শ্যুটিং চলছিল। হাতে নাতে এক উঠতি মডেল, পরিচালক, লাইটম্যান ও দুই ক্যামেরাম্যানকে গ্রেফতার করা হয়। এবং সাড়ে ৫ লক্ষ টাকার ক্যামেরা, ল্যাপটপ, ও মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়।

  • Share this:

    #মুম্বই: খোদ মুম্বইতে তৈরি হচ্ছে পর্নগ্রাফি ! মুম্বইতে একটি বাংলো ভাড়া নিয়ে সেখানেই তৈরি হচ্ছিল নীল ছবি বা অশ্লীল-ছবি। ভারতে পর্নগ্রাফি তৈরি নিশিদ্ধ। শুধু নিশিদ্ধ নয় ধরা পড়লে জেল ছাড়াও কঠোর শাস্তি হতে পারে। এসব জানা সত্তেও লুকিয়ে পর্নগ্রাফি বানাচ্ছিলেন মুম্বইয়ের এক পরিচালক।

    জানা গিয়েছে, অনেক দিন ধরেই পুলিশের সন্দেহ ছিল, যে ওই বাংলোতে কিছু একটা লুকিয়ে হচ্ছে। মাঝে মধ্যেই উঠতি মডেল বা অভিনেতা-অভিনেত্রীরা ওই বাংলোতে আসতেন। ক্যামেরা, লাইট, ল্যাপটপ সব নিয়ে আসা হত। তারপর সকলে মিলে ঘরের ভিতরেই কিছু একটা শ্যুট করতেন। ওখানকার লোকজনের সন্দেহ ছিল। এলাকার লোকেরাই পুলিশকে প্রথমে বিষয়টি জানান। অনেক সময় ওই নতুন মডেলদের প্রশ্ন করেছেন লোকজন, কিসের শ্যুটিং? তখন সঠিক জবাব দিতে পারেননি তাঁরা। এরপর পুলিশি হানায় উদ্ধার হয় গোটা বিষয়।

    শুক্রবার হঠাৎ পুলিশ গিয়ে হানা দেয় ওই বাংলোয়। তখন অশ্লীল দৃশ্যের শ্যুটিং চলছিল। হাতে নাতে এক উঠতি মডেল, পরিচালক, লাইটম্যান ও দুই ক্যামেরাম্যানকে গ্রেফতার করা হয়। এবং সাড়ে ৫ লক্ষ টাকার ক্যামেরা, ল্যাপটপ, ও মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়। ওই পরিচালকের অ্যাকাউন্টে ৩৬ লক্ষ টাকা ছিল। তাও বাজেয়াপ্ত করা হয়। জেরায় মহিলা মডেল জানায়, তাঁরা অনেক দিন ধরেই লুকিয়ে পর্নগ্রাফি শ্যুট করেন মোবাইলে। এবং তা নেটে আপলোড করে টাকা রোজগার করেন। এমনকি এই ভিডিওগুলো পার্সোনাল মেসেজেও পাঠানো হয় টাকার বিনিময়ে। আপাতত তাঁদের সকলকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এই ধরণের ঘটনা লুকিয়ে চলতেই থাকে। পুলিশের কাছে এর আগেও এমন ঘটনার উদাহরণ রয়েছে। মুম্বইয়ে স্ট্রাগল করতে এসে রোজগারের জন্য অনেকেই এই কাজ লুকিয়ে করেন।


    Published by:Piya Banerjee
    First published: