Football World Cup 2018

কলকাতায় উদ্ধার প্রচুর পরিমাণ মাদক, কিভাবে শরীরে ছড়ায় এই নেশা জানেন?

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 13, 2017 01:37 PM IST
কলকাতায় উদ্ধার প্রচুর পরিমাণ মাদক, কিভাবে শরীরে ছড়ায় এই নেশা জানেন?
নিষিদ্ধ মাদক
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 13, 2017 01:37 PM IST

 #কলকাতা: বছরের শেষে বর্ষবরণের মরসুমেই ড্রাগসের হাই টাইম। হাতে হাতেই নাইট পার্টি, রেভ পার্টিতে পৌঁছে যায় মাদক। নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো বা এনসিবি-র দাবি, উৎসবের সময় ভাল জিনিস পেতে দাম দিতে কার্পণ্য করেন না নেশাড়ুরা। উচ্চমানের মালানা হাসিসের কোড নাম 'কালা'। যার দশগ্রামের দাম দাম ছ-হাজার টাকা। কিন্তু ডিসেম্বরের পিক সিজনে সেটাই দশ হাজার।

মাদক পাচারকারীদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রচুর পরিমাণে এলএসডি এবং এমডিএমএ। কিন্তু কী এই মাদক? কী আকারে পাওয়া যায়? শরীরের ওপর এর প্রভাবই বা কী ? এক নজরে দেখে নেওয়া যাক তার হালহকিকৎ।

উচ্চমানের নেশা মালানা হাসিস

১০ গ্রামের ন্যূনতম দাম ৬০০০ টাকা

ডিসেম্বরে ১০ গ্রামের দাম ১০০০০ টাকা

'কালা' কোডে পরিচিত মালানা হাসিস

এলএসডি

---------

পুরো নাম লিসারজিক অ্যাসিড ডাইইথিলামাইড

মূলত ক্রিস্টালের মত দেখতে এই মাদক

ল্যাবে তরল, মাইক্রো ডটস, ব্লট হিসেবে তৈরি হয়

তরল এলএসডি ইনজেকশনের মাধ্যমে নেওয়া হয়

মাইক্রো ডটস লজেন্সের মতো খাওয়া যায়

ব্লট জিভের তলায় রাখলে নেশা হয়

এলএসডি রক্তে মিশতে আধঘন্টা সময় নেয়

প্রভাব থাকে আরও আধ ঘন্টা

এলএসডি বাড়িয়ে দেয় আবেগ,উত্তেজনা

হার্টবিট অনেকটাই বেড়ে যায়

এমডিএমএ

-----

পুরো নাম মেথিলিন ডাইঅক্সি মেটা অ্যামফেটামাইন

দুই ফর্ম্যাটে পাওয়া যায় এই মাদক

একস্ট্যাসি বা এমডিএমএ-ই

ক্যান্ডি অর্থাৎ লজেন্স আকারেও মেলে

ইনজেকশনের মাধ্যমেও নেওয়া যায় এই মাদক

মাদকের ধোঁয়া থেকেও নেশা হয়

রক্তে মিশতে আধঘন্টা সময় লাগে

প্রভাব থাকে ৩ থেকে ৬ ঘন্টা

হতে পারে অঙ্গহানি, হার্ট অ্যাটাক

দেখা দিতে পারে হরমোনাল ডিজঅর্ডার

নভেম্বর-ডিসেম্বর। মাদক পাচারকারীদের ভাষায় ব্যবসার হাই টাইম। তাই একটু বাড়তি ঝুঁকি নিয়েই চলে মাদকের কারবার। সেই বাড়তি ঝুঁকি নিতে গিয়েই নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর হাতে ধরা পড়ে গেল পাচারকারীরা।

নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর দাবি, নিখিলের ফোন থেকে অনেক তথ্য পেয়েছেন তাঁরা। মাদক চক্রে জড়িত বিনোদন জগতের বেশ কিছু হুজ হু-র নামও উঠে এসেছে তাকে জেরা করে। গতকাল নারকোটিক ব্যুরোর ফাঁদে পড়ে দুই ম্যানেজমেন্ট ছাত্রও ৷ তাদের জেরা করতেই উঠে আসে ডিস্কের পাশাপাশি কোন কোন স্কুল কলেজ ক্যাম্পাসে এই মাদক পাচার ৷

First published: 01:33:35 PM Dec 13, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर