উচ্চ প্রাথমিকের ইন্টারভিউ তালিকা নিয়ে ৭৫০০ এর বেশি অভিযোগ SSC তে, শীঘ্রই শুরু হবে কেস টু কেস শুনানি

case to case hearing of ssc complaints will start soon

হাইকোর্টের নির্দেশ রয়েছে ১২ সপ্তাহের মধ্যেই এই শুনানি প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে।

  • Share this:

#কলকাতা: উচ্চ প্রাথমিক নিয়ে একাধিক অভিযোগ জমা পড়ল স্কুল সার্ভিস কমিশনে। হাইকোর্টের নির্দেশে স্কুল সার্ভিস কমিশন তিনটি মাধ্যমে অভিযোগ নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছিল। কমিশন সূত্রে খবর উচ্চ প্রাথমিক এর ইন্টারভিউ তালিকা নিয়ে প্রায় সাড়ে ৭ হাজার অভিযোগ জমা পড়েছে। যার মধ্যে ইমেল মারফত সবথেকে বেশি অভিযোগ জমা পড়েছে কমিশনে। প্রায় ৫ হাজার ৩০০ অভিযোগ জমা পড়েছে ইমেল মারফত। কমিশনের সদর দফতরে  অভিযোগ জমা পড়েছে দুই হাজারেরও বেশি। অভিযোগ সংখ্যায় কম হলেও জমা পড়েছে স্পিডপোস্ট মারফত। কমিশন সূত্রে খবর যে অভিযোগগুলো জমা পড়েছে তার মধ্যে একজন প্রার্থীর একাধিকবার অভিযোগ দেওয়ার সংখ্যাই বেশি। কমিশন সূত্রে খবর ইতিমধ্যেই অভিযোগগুলি যাচাইয়ের কাজ চলছে। মূলত যে অভিযোগগুলো জমা পড়ছে কমিশনে সেগুলি বারকোড লাগানো হচ্ছে কমিশনের তরফে। তার মাধ্যমে কার্যত যাচাই হচ্ছে অভিযোগগুলিকে। শীঘ্রই কমিশনের তরফ থেকে কেস টু কেস শুনানি শুরু হবে বলে কমিশন সূত্রে খবর।

সম্প্রতি স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান সচিব পর্যায়ের আধিকারিকদের পাঠানো নিয়ে চিঠি লিখেছে স্কুল শিক্ষা দফতরকে। হাইকোর্টের নির্দেশে সচিব পর্যায়ের আধিকারিকদের দিয়ে জমা পড়া অভিযোগগুলোকে কেস টু কেস শুনানি করতে হবে। হাইকোর্টের সেই নির্দেশের জন্যই কমিশন সচিব পর্যায়ের আধিকারিকদের চেয়েছে স্কুল শিক্ষা দপ্তরের থেকে। সূত্রে খবর দুই থেকে তিনদিনের মধ্যেই কতজন সচিব পর্যায়ের অধিকারি দেওয়া যাচ্ছে সেই বিষয় নিয়ে বিস্তারিত জানিয়ে দেবে স্কুল শিক্ষা দফতর স্কুল সার্ভিস কমিশনকে। সেই চিঠি পাওয়ার পরপরই কমিশন কেস টু কেস শুনানি প্রক্রিয়া শুরু করবে বলেই কমিশন সূত্রে খবর। হাইকোর্টের নির্দেশ রয়েছে ১২ সপ্তাহের মধ্যেই এই শুনানি প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। সেক্ষেত্রে তার আগেই যাতে অভিযোগ গুলির নিষ্পত্তি করা যায় সেই বিষয় নিয়ে তৎপরতা শুরু করেছে স্কুল সার্ভিস কমিশন।

অন্যদিকে মঙ্গলবারই হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে শুনানি রয়েছে উচ্চ প্রাথমিকে ইন্টারভিউ তালিকা নিয়ে। কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে শুনানির সময় কমিশন যে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া হাইকোর্টের নির্দেশে শুরু করে দিয়েছে সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ করবে। পাশাপাশি হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চের নির্দেশ মতো যাবতীয় প্রক্রিয়াও শুরু করা হয়েছে সেই বিষয়ও উল্লেখ করবে কমিশন বলেই সূত্রের খবর। অন্যদিকে সোমবার থেকেই শুরু হয়েছে উচ্চ প্রাথমিকে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া। মূলত এদিনের ইন্টারভিউ প্রক্রিয়াতে খুব কম সংখ্যক চাকরিপ্রার্থী এলেও ২৩ তারিখ থেকে বেশি সংখ্যক চাকরিপ্রার্থীরা ইন্টারভিউর জন্য আসবে বলেই কমিশন সূত্রে খবর। ২৩ তারিখের পর থেকেই দিনে ১২০০ থেকে ১৫০০ চাকরিপ্রার্থীকে ইন্টারভিউতে ডাকা হয়েছে বলেই কমিশন সূত্রে খবর। ৪ঠা অগাস্ট ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শেষ করে দেওয়া হবে বলে ইতিমধ্যেই শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানিয়েছেন। যদিও মঙ্গলবারে ডিভিশন বেঞ্চে শুনানির উপর কমিশন এখন নজর রাখতে চাইছে। সেক্ষেত্রে মঙ্গলবার কমিশনের কাছে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ দিন হতে চলেছে এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

Published by:Debalina Datta
First published: