UP Panchayat Sahayak Recruitment 2021: ৫৮ হাজারেরও বেশি পঞ্চায়েত সহায়ক পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে শুক্রবার

নোটিফিকেশনে বলা হয়েছে, প্রার্থীদের হাই স্কুল ও মাধ্যমিক এই দুই পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে বেছে নেওয়া হবে

নোটিফিকেশনে বলা হয়েছে, প্রার্থীদের হাই স্কুল ও মাধ্যমিক এই দুই পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে বেছে নেওয়া হবে

  • Share this:

UP Panchayat Sahayak Recruitment 2021: পঞ্চায়েত সহায়ক পদে উত্তরপ্রদেশে গ্রাম পঞ্চায়েতে কর্মী নিয়োগ হতে চলেছে। এই মর্মে সম্প্রতি পঞ্চায়েত মন্ত্রী ভূপেন্দ্র সিং চৌধুরি একটি নোটিফিকেশন প্রকাশ করেছেন। মোট ৫৮ হাজার ১৮৯টি পদ রয়েছে।

উত্তরপ্রদেশে পঞ্চায়েত সহায়ক পদে নিয়োগে শূন্যপদের বিবরণ-

৫৮ হাজার ১৮৯টি শূন্যপদে নিয়োগ করতে চলেছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। নির্বাচিত প্রার্থীদের পঞ্চায়েত প্রধানের অধীনে কাজ করতে হবে।

নোটিফিকেশনে বলা হয়েছে, প্রার্থীদের হাই স্কুল ও মাধ্যমিক এই দুই পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে বেছে নেওয়া হবে। তবে, নির্দিষ্ট গ্রাম পঞ্চায়েতে কেউ যদি মারা যান এবং তাঁদের ছেলে বা মেয়ে যদি যোগ্যতা অনুযায়ী এই পদে আবেদন করেন তাহলে তাঁকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

এই ৫৮ হাজার ১৮৯টি পদের মধ্যে পঞ্চায়েত সহায়ক, অ্যাকাউন্ট্যান্ট কাম ডেটা এন্ট্রি অপারেটরের পদ রয়েছে।

উত্তরপ্রদেশে পঞ্চায়েত সহায়ক পদে নিয়োগে শূন্যপদে আবেদনের গুরুত্বপূর্ণ তারিখ-

আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। ৩০ জুলাই, শুক্রবার থেকে বাছাইয়ের প্রক্রিয়া শুরু হবে। চলবে সেপ্টেম্বরের ১০ তারিখ পর্যন্ত। বাছাইয়ের পর সকলকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার দেওয়া হবে।

উত্তরপ্রদেশে পঞ্চায়েত সহায়ক পদে নিয়োগে শূন্যপদে আবেদনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-

এবিষয়ে ভূপেন্দ্র সিং চৌধুরি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, গ্রাম পঞ্চায়েতের কোনও সদস্য তাদের আত্মীয় বা পরিচিতকে পঞ্চায়তে সহায়ক পদে নিয়োগ করতে পারবে না। তিনি চিহ্নিত করে বলেছেন, কোনও পঞ্চায়েত প্রধান, উপপ্রধান বা সদস্য তাঁদের বাবা, ঠাকুর্দা, শ্বশুর, ছেলে, নাতি, জামাই, বৌমা, মেয়ে, স্বামী, স্ত্রী, মা- এমন কাউকে এই পদে নিয়োগ করতে পারবেন না। তাঁর কথায়, যোগী সরকার গ্রাম পঞ্চায়েতের উন্নতি চায়।

এদিকে, পঞ্চায়েত সহায়করা প্রতি মাসে বেতন হিসেবে ৬ হাজার টাকা করে পাবে। এই পদে এক বছরের চুক্তির ভিত্তিতে নিয়োগ করা হবে।

আবেদনের জন্য ফি কত লাগবে বা কী কী নথি দিতে হবে তা উল্লেখ করা নেই। পাশাপাশি আবেদন পত্র জমা দেওয়া শেষ তারিখের কথাও উল্লেখ করা নেই। এর জন্য নির্দিষ্ট গ্রাম পঞ্চায়েতে যোগাযোগ করে জেনে নেওয়া যেতে পারে। বলে রাখা ভালো, কোনও অনলাইন পদ্ধতিতে ফর্ম পাওয়া যাচ্ছে না।

এছাড়াও এক্ষেত্রে বয়স সীমা উল্লেখ করা হয়নি। ফলে আবেদনের আগে এই বিষয়টিও নোটিফিকেশনে দেখে নেওয়া ভালো।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: