Home /News /education-career /
Class 11 Admission: পর্যাপ্ত পরিকাঠামো থাকলেই আসন বৃদ্ধি, একাদশে ভর্তি নিয়ে সংশোধিত নির্দেশিকা সংসদের

Class 11 Admission: পর্যাপ্ত পরিকাঠামো থাকলেই আসন বৃদ্ধি, একাদশে ভর্তি নিয়ে সংশোধিত নির্দেশিকা সংসদের

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

নির্দেশিকা জারি করে ফের সংশোধন। উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ গত শনিবারের নির্দেশিকায় ফের পরিবর্তন আনল।

  • Share this:

#কলকাতা: নির্দেশিকা জারি করে ফের সংশোধন। উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ গত শনিবারের নির্দেশিকায় ফের পরিবর্তন আনল। কত সংখ্যক ছাত্রছাত্রী একাদশ শ্রেণিতে সর্বোচ্চ ভর্তি করতে পারবে একটি স্কুল,  তা নিয়ে গত শনিবার উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ নির্দেশিকা জারি করে। সেই নির্দেশিকায় সংসদ বলে একাদশ শ্রেণিতে প্রত্যেকটি স্কুলে আসন সংখ্যা ২৭৫ থেকে বাড়িয়ে ৪০০ করার কথা। এক লাফে এত সংখ্যক আসন বাড়ানোর কথা বলার জেরে একাধিক স্কুলের পরিকাঠামো নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। বিশেষত জেলার একাধিক স্কুলে যে খানে পর্যাপ্ত পরিকাঠামো নেই, সেখানে এত সংখ্যক আসন বাড়িয়ে কী ভাবে পড়ুয়াদের সুযোগ করে দেওয়া সম্ভব, তা নিয়েও উঠতে শুরু করে প্রশ্ন। এ বার তার জেরেই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ নির্দেশিকা সংশোধন আনল।

আরও পড়ুন - হজরত মহম্মদকে নিয়ে 'বিতর্কিত' মন্তব্য, নেত্রী নুপুর শর্মাকে বহিষ্কার বিজেপির

গত শনিবারের জারি করা নির্দেশিকায় সংশোধন এনে সংসদ জানিয়েছে পর্যাপ্ত পরিকাঠামো ও পর্যাপ্ত শিক্ষক- শিক্ষিকা-সহ স্কুলগুলির পর্যাপ্ত সংখ্যক ম্যান পাওয়ার থাকলেই আসন বৃদ্ধি করতে পারবে স্কুলগুলি। যদিও আসন বৃদ্ধির ব্যাপারে গোটা বিষয়টি স্কুলগুলির ওপরেই আগেই ছেড়ে দিয়েছিল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ সূত্রে খবর, আসন সংখ্যা বাড়ানোর কথা বলা হলেও গ্রামাঞ্চলের অনেক স্কুলে এই শিক্ষক বদলির জেরে শিক্ষক সংখ্যা অনেকটাই কমে গেছে। সে ক্ষেত্রে এক একটা স্কুলে প্রয়োজনের তুলনায় বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী ভর্তি হতে পারে। সেই আশঙ্কায় এই সংশোধন বলেই দাবি আধিকারিকদের। যদিও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের এই সংশোধনী নির্দেশিকার ফলে ফের স্কুলগুলির মধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

আরও পড়ুন- ত্রিপুরা উপনির্বাচনে প্রার্থী তালিকা তৈরি তৃণমূলের, ২০২৩-এর আগে ফের পরীক্ষা

ইতিমধ্যেই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ নির্দেশিকা দিয়ে জানিয়েছে মাধ্যমিকে বিজ্ঞানের বিষয়গুলিতে ৩৫ শতাংশ নম্বর পেলেই একাদশ শ্রেণিতে সায়েন্স নিয়ে পড়ার সুযোগ পাবেন ছাত্র-ছাত্রীরা। যা নিয়েও শিক্ষা মহলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। শুধু তাই নয়, এর জেরে স্কুলগুলিতে বিজ্ঞানের পড়ার আবেদনের সংখ্যাও বাড়বে বলেই মনে করছে একাংশ। যদিও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য জানিয়েছিলেন স্কুলগুলিতে বিজ্ঞানের পড়ার আগ্রহ কমছে তার জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Education

পরবর্তী খবর