Home /News /education-career /
Babita Sarkar joins job as school teacher: ছাত্রীছাত্রীদের ন্যায়ের পথে চলতে শেখাবেন, মেখলিগঞ্জের সেই স্কুলেই চাকরিতে যোগ দিলেন ববিতা

Babita Sarkar joins job as school teacher: ছাত্রীছাত্রীদের ন্যায়ের পথে চলতে শেখাবেন, মেখলিগঞ্জের সেই স্কুলেই চাকরিতে যোগ দিলেন ববিতা

মেখলিগঞ্জের স্কুলে চাকরিতে যোগ দিলেন ববিতা সরকার৷

মেখলিগঞ্জের স্কুলে চাকরিতে যোগ দিলেন ববিতা সরকার৷

মেখলিগঞ্জই মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর খাসতালুক৷ সেখানকার স্কুলেই তাঁর মেয়ের জায়গায় শিক্ষিকা হিসেবে যোগ দিলেন ববিতা৷

  • Share this:

    #প্রবীর কুণ্ডু, মেখলিগঞ্জ: চার বছর ধরে এই দিনটির জন্যই লড়ে গিয়েছেন তিনি৷ অবশেষে কোচবিহারের মেখলিগঞ্জের ইন্দিরা গার্লস উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষিকা হিসেবে যোগ দিলেন ববিতা সরকার৷ রাজ্যে এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনের অন্যতম মুখ ববিতা চাকরিতে যোগ দিয়ে জানালেন, নিজের ছাত্রছাত্রীদের ন্যায়ের পথে চলার শিক্ষা দেবেন তিনি৷

    মেখলিগঞ্জের এই স্কুলেই ২০১৮ সালে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষিকা হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারী৷ কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে৷ সেই অঙ্কিতার জায়গাতেই চাকরি পেলেন ববিতা, প্রথম দিন ক্লাসও নিলেন৷ আগেই চাকরিতে যোগ দেওয়ার নিয়োগপত্র হাতে পেয়েছিলেন ববিতা৷ এ দিন সেই নিয়োগপত্র এবং অন্যান্য নথি জমা দিয়ে স্কুলের চাকরিতে যোগ দেন তিনি৷

    আরও পড়ুন: লড়াকু ববিতার এক লড়াই শেষ, শুরু অন্য লড়াই

    চার বছর ধরে খোদ মন্ত্রী কন্যার বেআইনি নিয়োগের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই করেছেন৷ চাকরিতে যোগ দিয়ে ববিতা এ দিন বলেন, 'আমি কারও বিরুদ্ধে লড়িনি৷ শুধু মেধা তালিকায় যে বিভ্রাট ছিল, তার বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলে আদালতে আবেদন করেছিলাম৷ আদালতের রায়ে প্রমাণিত হয়েছে যে সত্যিই মেধা তালিকায় বিভ্রাট ছিল৷ তাই আমার চাকরি করতে এসেও এতটুকু ভয় করছে না৷'

    প্রসঙ্গত, মেখলিগঞ্জই মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর খাসতালুক৷ সেখানকার স্কুলেই তাঁর মেয়ের জায়গায় শিক্ষিকা হিসেবে যোগ দিলেন ববিতা৷ মন্ত্রী পরেশ অধিকারী অবশ্য বিষয়টি আদালতের বিচারাধীন বলে দাবি করে কোনও মন্তব্য করতে চাননি৷

    এ দিন শিলিগুড়ির বাড়ি থেকে সরাসরি মেখলিগঞ্জের স্কুলে পৌঁছন ববিতা৷ তবে নিয়মিত শিলিগুড়ি থেকে মেখলিগঞ্জ যাতায়াত করা সম্ভব নয়৷ তাই মেখলিগঞ্জ বা হলদিবাড়িতে ঘর ভাড়া নিয়ে থাকবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ববিতা৷ এতদিনের আইনি লড়াইয়ে যাঁরা তাঁর পাশে ছিলেন, তাঁদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ববিতা৷ পাশাপাশি, এখনও যে এসএসসি চাকরিপ্রার্থীরা আন্দোলন করছেন, তাঁরাও একদিন তাঁর মতোই স্বপ্নের চাকরিতে যোগ দিতে পারবেন, এমনও আশা প্রকাশ করেন ববিতা৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    পরবর্তী খবর