Home /News /education-career /
Assistant Professor Recruitment 2022: চাকরির বড় সুযোগ রাজ্যে, আগামী বছর প্রায় দেড় হাজার পদে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর নিয়োগ করা হবে

Assistant Professor Recruitment 2022: চাকরির বড় সুযোগ রাজ্যে, আগামী বছর প্রায় দেড় হাজার পদে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর নিয়োগ করা হবে

বিগত পাঁচ বছরের তুলনায় এবারেই সবথেকে বেশি সংখ্যক প্রার্থী নিয়োগ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

  • Share this:

#কলকাতা: সম্প্রতি কলেজ সার্ভিস কমিশনের (College Service Commission) তরফে এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে রেকর্ড সংখ্যক অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর নিয়োগের কথা জানানো হয়েছে। সেই সঙ্গে জানানো হয়েছে আসন সংখ্যাও। জানা গিয়েছে যে, এখনও পর্যন্ত মোট আসন সংখ্যা ১,৫০০। আসলে তিন বছর ধরে তৈরি হওয়া শূন্যপদগুলিই এবার পূরণ হতে চলেছে। আর বিগত পাঁচ বছরের তুলনায় এবারেই সবথেকে বেশি সংখ্যক প্রার্থী নিয়োগ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিশেষ করে কর্মরত প্রার্থীদের মধ্যে একটা বড় অংশের কর্মচারীই এবার অবসর নিচ্ছেন, আর তার জন্যই এত সংখ্যক শূন্যপদ তৈরি হচ্ছে। ফলে এই শূন্যপদের সংখ্যা আগামী ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখ পর্যন্ত আরও বাড়বে বলে আশা করা যাচ্ছে।

অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর পদে নিয়োগের জন্য ইতিমধ্যেই নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে কলেজ সার্ভিস কমিশন। এর পূর্বে ২০১৯ সালে শেষ বারের মতো অধ্যাপক নিয়োগের প্রক্রিয়া চলেছিল, যা মহামারীর পূর্বেই শেষও হয়ে গিয়েছিল। এরপর প্রায় তিন বছর পর আবার অধ্যাপক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সারা রাজ্যে সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত কলেজ থেকে ইতিমধ্যেই ৪৫টি বিষয়ে ১,৫০০টি আসনের জন্য নিয়োগের কথা বলা হয়েছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন যে, চলতি বছরের শেষে এই আসন সংখ্যার পরিমাণ প্রায় ২০০০ ছাড়িয়ে যেতে পারে।

পশ্চিমবঙ্গ কলেজ সার্ভিস কমিশনের চেয়ারপার্সন দীপক কর (Dipak Kar) জানিয়েছেন, “আপাতত ৩৩,০০০ প্রার্থীর আবেদনপত্র গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ১০০০ সংখ্যক প্রার্থী প্রত্যেক সপ্তাহে ৫টি বিষয়ের জন্য ইন্টারভিউ দিচ্ছেন। ইতিমধ্যেই ১৫টি বিষয়ের জন্য প্রায় ৮০০০ প্রার্থী ইন্টারভিউ দিয়েছেন। খুব সম্ভবত এই বছরের মধ্যেই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।”

ইন্টারভিউ পর্ব শেষ হলে প্রার্থীদের প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে একটি মেধা তালিকা প্রকাশ করে কমিশনের ওয়েবসাইটে দেওয়া হবে। সেই সময় যথাযথ ভাবে শূন্যপদের বিবরণও প্রকাশ করা হবে। এরপর ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশনের পর প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে প্রতি বছর স্টেট এলিজিবিলিটি টেস্ট নেওয়া হয়। এবার ৯ জানুয়ারি এই পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল। যে সকল প্রার্থীরা নেট বা সেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন, তাঁরা কলেজ সার্ভিস কমিশনের ইন্টারভিউতে অংশ নিতে পারেন।

Assistant Professor Recruitment 2022: নির্বাচন পদ্ধতি

প্রার্থীদের নেট/সেট/পিএইচডি, অ্যাকাডেমিক কোয়ালিফিকেশন, ইন্টারভিউ, অভিজ্ঞতা ইত্যাদি নানা বিষয়ের উপর ভিত্তি করে নির্বাচন করা হয়। বর্তমানে কমিশনের অধীনে বিভিন্ন কলেজে প্রিন্সিপাল পদের জন্যেও আবেদন চলছে।

First published:

Tags: Job News 2022

পরবর্তী খবর