ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে আত্মহত্যা! ১৩ বছরেই জীবন শেষ করার চরম সিদ্ধান্ত কিশোরীর

ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে আত্মহত্যা! ১৩ বছরেই জীবন শেষ করার চরম সিদ্ধান্ত কিশোরীর
Photo-Representative

সম্পর্কে আপত্তি থাকায় মানসিক অবসাদের স্বীকার কিশোরী৷

  • Share this:

#কলকাতা: পাটুলি থানা এলাকার পূর্বপাড়ার একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার কিশোরীর ঝুলন্ত দেহ। বেশকিছু দিন ধরেই পরিবারের সঙ্গে ভালো করে কথা বলত না ঐ তেরো বছরের কিশোরী। যাদবপুর এলাকার সম্মিলিত বালিকা বিদ্যালয়ে ক্লাস এইটের ছাত্রী ছিল ঐ কিশোরী।

পুলিশ সূত্রে খবর বিগত তিন বছর ধরে একটি ছেলের সঙ্গে তার ভালবাসা ছিল। সেই সম্পর্কের কথা কিশোরীর পরিবার জানলেও প্রথম থেকেই আপত্তি ছিল তাদের। বিভিন্ন সময় সেই সম্পর্কের কারনে অশান্তি লেগে থাকত বাড়িতে। কিশোরী ঐ বজবজ নিবাসী যুবকের সঙ্গে অশান্তির কারনে মানসিক অবসাদে থাকত বলে জানা গেছে। পুলিশ সূত্রে আরও খবর কিশোরী বারবার সেই সম্পর্কের কথা পরিবারের কাছে জানালেও, কোনভাবে মেনে নিতে চায় নি পরিবার। বিভিন্ন আপত্তি সত্বেও বারবার ঐ যুবকের সঙ্গে কিশোরী সম্পর্কে ভালো ভাবে মেনে পারছিল না কিশোরীর পরিবার। সেই না মেনে নেওয়া ও অশান্তিতেই অবসাদের কথা শোনা যেত কিশোরীর গলায়। যদিও প্রায়ই মায়ের মোবাইল থেকে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করে বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে কথা হত। সেই কথা বলাতেও অনেকটাই আপত্তি ছিল বলে সূত্রের খবর। রবিবার সকালে কিশোরীর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।  দেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে, সেই ময়নাতদন্তের  প্রাথমিক রিপোর্টের পরেই মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানতে পারবে পুলিশ। কিশোরীর মৃত্যুর পরে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয় বেশ কিছু নথি ও মোবাইল ফোন।  একটি ফোন উদ্ধার করার পরে ইনস্টাগ্রামে একটি লেখা দেখে তদন্তকারী আধিকারিক। সেখানে লখা আছে- 'আমার দিদার ব্যবস্থা আমি করছি। তুই চিন্তা করিস না আর আমি কি করতে পারি তুই দেখে নে, আমার দিদা কে'।

Susovan Bhattacharjee


Published by:Debalina Datta
First published: