• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • চায়ের দোকানে আসা মহিলার সঙ্গে স্বামীর প্রেম, পরিস্থিতি হাতের বাইরে যাওয়ায় যা করল স্ত্রী

চায়ের দোকানে আসা মহিলার সঙ্গে স্বামীর প্রেম, পরিস্থিতি হাতের বাইরে যাওয়ায় যা করল স্ত্রী

wife killed husband and child after his extramarital affair comes in forefront

wife killed husband and child after his extramarital affair comes in forefront

স্বামীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা জেনে ফেলায় স্বামী ও সন্তানকে খুন করে আত্মহত্যার চেষ্টা স্ত্রীর...

  • Share this:

#জঙ্গিপুর: স্বামীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা জেনে ফেলায় স্বামী ও সন্তানকে খুন করে আত্মহত্যার চেষ্টা স্ত্রীর। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রঘুনাথগঞ্জ থানার রানীনগর অঞ্চলে৷ মৃত স্বামীর নাম আসাদুল সেখ (২৮) ও ছেলে আসমাউল সেখ(৩)। স্ত্রী বুলি বিবিকে উদ্ধার করে প্রথমে জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতাল ও পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। পুলিশ মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠায়। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রঘুনাথগঞ্জ থানার পুলিশ।

মালডোবা প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সামনে একটি চায়ের দোকান রয়েছে আসাদুলের। এই চায়ের দোকানে থেকেই এক মহিলার সাথে সম্পর্ক তৈরি হয়। বাড়িতে আসার পরেও সে ওই মহিলার সাথে ফোনে কথা বলত বলে অভিযোগ। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই গণ্ডগোল লাগত। রবিবার রাতেও  দুজনের মধ্যে চরম অশাস্তি হয়। মৃতের আত্মীয় রেক্সনা বিবি বলেন, রবিবার রাতে আসাদুল সেখ, বুলি বিবি ও তাদের ছেলে আসমাউল সেখ খাওয়াদাওয়া করে ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। সোমবার ভোরে আজানের সময় পরিবারের লোকজন ডাকাডাকি করলেও ওদের কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। জানলা দিয়ে দেখি তিনজনেই অচৈতন্য অবস্থায় ঘরের মধ্যে পড়ে রয়েছে। বাড়ির সকলে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে তাদের উদ্ধার করে জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকেরা আসাদুল সেখ ও আসমাউল সেখকে মৃত বলে ঘোষনা করে।

বুলি বিবির অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে বহরমপুর মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়। খবর পেয়ে ছুটে আসে বুলি বিবির বাপের বাড়ির লোকেরা। বাবা রবিউল সেখ বলে সকালে খবর পাই মেয়ে জামাই নাতি সকলেই মারা গিয়েছে। ছুটে এসে দেখি মেয়েকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছে। জামাই ও নাতির মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। খুন করা হয়েছে তবে কিভাবে এই ঘটনা ঘটল কিছুই বুঝে উঠতে পারছিনা। মৃত আসাদুল সেখের মা মিলি বিধি বলে আসাদুলের চায়ের দোকান রয়েছে। সেখানেই এক মহিলার সাথে ওর সম্পর্ক তৈরি হয়। বৌমা বুলি বিবি ছেলের এই বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা জেনে ফেলে। আর তারপর থেকেই ওদের মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকত। বৌমা অশাস্তি হলেই বলত মরলে স্বামী ছেলেকে নিয়ে একসাথেই মরব। আর তারপরেই এই ঘটনা। ঘটনায় মৃতের পরিবার জুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। খবর পেয়ে রঘুনাথগঞ্জ থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠায়। তবে কিভাবে এই ঘটনা ঘটল তা নিয়ে পুলিশ অন্ধকারে।

Pranab Kumar Banerjee

Published by:Debalina Datta
First published: