• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনা করে স্বামীকে খুন ! প্রমাণ লোপাটে দেহ মাটিতে পুঁতে দিল স্ত্রী

প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনা করে স্বামীকে খুন ! প্রমাণ লোপাটে দেহ মাটিতে পুঁতে দিল স্ত্রী

তদন্তে পুলিশ জানতে পারে, বাবা বকা দেওয়াতেই রাগ হয় ছেলের৷ সেই রাগ থেকেই বাবার মাথায় লোহার রড দিয়ে প্রথমে আঘাত করে অভিযুক্ত কিশোর৷ তার পর মৃত্যু নিশ্চিত করতে গলায় কাপড়ের ফাঁস লাগিয়ে দেয় সে৷

তদন্তে পুলিশ জানতে পারে, বাবা বকা দেওয়াতেই রাগ হয় ছেলের৷ সেই রাগ থেকেই বাবার মাথায় লোহার রড দিয়ে প্রথমে আঘাত করে অভিযুক্ত কিশোর৷ তার পর মৃত্যু নিশ্চিত করতে গলায় কাপড়ের ফাঁস লাগিয়ে দেয় সে৷

আসমা বিবি বিয়ের এক বছরের মধ্যেই শ্যামসুন্দরপুর গ্রামের দুলাল আলির সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়লে গন্ডগোলের সুত্রপাত হয়।

  • Share this:

    #নন্দকুমার: ১৮ বছর আগে নন্দকুমার থানার ধান্যগর গ্রামের যুবক নুর মহম্মদের বিয়ে হয়েছিল নন্দকুমারেরই ফতেপুর গ্রামের আসমা বিবির সঙ্গে। বিবাহিতা আসমা বিবি বিয়ের এক বছরের মধ্যেই শ্যামসুন্দরপুর গ্রামের দুলাল আলির সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়লে গন্ডগোলের সুত্রপাত হয়।

    বিয়ের ২ বছর পর থেকে এই বিবাহিত সম্পর্ক নিয়েই শুরু হয় ঝামেলা। মাঝে একবার এই নিয়ে সালিশিও হয় বলে স্থানীয়রা পুলিশকে জানিয়েছে। সেখানেই অভিযুক্ত দুলাল সবার সামনে নুর মহম্মদকে খুনের হুমকিও দেয় বলে অভিযোগ। এরমধ্যেই আট দিন আগে হঠাৎই নিখোঁজ হয় নুর মহম্মদ। এ নিয়ে নন্দকুমার থানায় অভিযোগ দায়েরও করা হয়। সন্দেহ বশত আসমা বিবিকে আটক করে নন্দকুমার থানার পুলিশ জেরা করে জানতে পারে নিজের স্বামীকে খুন করে নন্দকুমার থানার ফতেপুর গ্রামে নিজের বাপের বাড়ির আশপাশেই দেহ মাটি খুঁড়ে পুতে দিয়েছে।

    জানা গিয়েছে, আসমা বিবি কয়েক বছর ধরে বেশিরভাগ সময় নিজের মায়ের সাথেই বেশিরভাগ সময়টা থাকতেন। সেখানেই স্বামী দেখা করতে গেলে প্রেমিকের সাহায্য নিয়ে তাকে খুন করা হয় ৷ এরপর  প্রমাণ লোপাট করতে তারা দেহ মাটিতে পুঁতে দেয় বলে পুলিশের ধারণা। দু’জনকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ।

    তথ্য- সুজিত ভোমিক

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: