ক্রাইম

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ছিঃ! পঞ্চাশেরও বেশি শিশুকে দিয়ে ১০ বছর ধরে চলছিল রমরমা যৌন ব্যবসা, CBI-জালে সরকারি ইঞ্জিনিয়র

ছিঃ! পঞ্চাশেরও বেশি শিশুকে দিয়ে ১০ বছর ধরে চলছিল রমরমা যৌন ব্যবসা, CBI-জালে সরকারি ইঞ্জিনিয়র
প্রতীকী ছবি।

পঞ্চাশেরও বেশি শিশুকে দিয়ে ১০ বছর ধরে চলছিল রমরমা যৌন ব্যবসা, CBI-জালে সরকারি ইঞ্জিনিয়ার। যোগী সরকারের সেচ দফতরের জুনিয়র ইঞ্জিনিয়র হিসেবে কর্মরত অভিযুক্ত চিত্রকূটের বাসিন্দা রামভবন।

  • Share this:

#চিত্রকূট: ৫-১৬ বছর বয়সী পঞ্চাশেরও বেশি শিশুকে দিয়ে ১০ বছর ধরে চলছিল রমরমা যৌন ব্যবসা। তাদের দিয়েই শ্যুট করা হত ভিডিও। আর তা মোটা টাকার বিনিময়ে বেচা হত দেশ-বিদেশে। পাশাপাশি, ডার্ক ওয়েবের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হত   শিশুদের ব্যবহার করে বানানো সেইসব অশ্লীল ভিডিও। তা থেকে ঘরে আস্ত লক্ষ লক্ষ টাকা।

ভয়ানক লজ্জাজনক ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। যোগী সরকারের সেচ দফতরের জুনিয়র ইঞ্জিনিয়র হিসেবে কর্মরত অভিযুক্ত চিত্রকূটের বাসিন্দা রামভবন। CBI সূত্রে জানা গিয়েছে, বছরের শুরুর দিকে ঘটনাটি প্রথম প্রকাশ্যে আসে। সেই সময় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা রুজু হয়েছিল। অভিযোগ ছিল উত্তরপ্রদেশের বান্দা, চিত্রকূট এবং হামিরপুর জেলায় শিশু এবং নাবালিকাদের ওপর যৌন নিগ্রহ  এবং যৌন অত্যাচার করা হচ্ছে একের পর এক। তদন্তে নেমে CBI-র গোয়েন্দারা বুঝতে পারেন শুধু নিগ্রহ নয়। শিশুদের ব্যবহার করে কিছু অশ্লীল ভিডিও তৈরি করা হচ্ছে, যা পরবর্তীতে ছড়িয়ে পড়ছে সামাজিক মাধ্যমে। সেই ভিডিও তৈরিতে ব্যবহার করা হছহে মোবাইল, ল্যাপটপ-সহ আর একাধিক বৈদ্যুতিন যন্ত্র।

তদন্তে নেমে CBI গোয়েন্দারা বুঝতে পারেন অভিযুক্ত শিশুদের দিয়ে অশ্লীল ভিডিও শ্যুট করে, তা ব্যবসার কাজে লাগানো হচ্ছে। ইন্টারনেটের মাধ্যমে তা পৌঁছে যাচ্ছে দেশ এবং বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে, তা থেকে ঘরে আসছে লক্ষ লক্ষ টাকা। CBI কর্তারা জানতে পারেন, ডার্ক ওয়েব ব্যবহার করে এই ভিডিও বিক্রি করতেন অভিযুক্ত ইঞ্জিনিয়র। এরপর পর্যাপ্ত তথ্যপ্রমাণ হাতে নিয়ে তদন্তে নামেন CBI কর্তারা। মঙ্গলবার অভিযুক্ত ব্যক্তির আটটি বাড়িতে চলে চিরুনি তল্লাশি। সেখান থেকে উদ্ধার হয় নগদ ৮ লক্ষ টাকা, মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ, ওয়েব ক্যামেরা-সহ আর বেশ কিছু পেনড্রাইভ, মেমরি কার্ড এবং একাধিক সেক্স টয়।

CBI সূত্রে জানা গিয়েছে, পঞ্চাশেরও বেশই শিশুকে দিয়ে ভিডিও বানানোর জন্য বৈদ্যুতিন যন্ত্র দিয়ে তাদের উত্তেজিত করত ওই ব্যক্তি। দীর্ঘ ১০ বছর ধরে চলছিল এই ব্যবসা। গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, অভিযুক্তের ই-মেল থেকে স্পষ্ট হয়েছে, সে দেশ এবং বিদেশের বহু ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ রাখত। তাদেরকেই এই ভিডিও চড়া দামে বিক্রি করত। এ ছাড়া একাধিক অসামাজিক কাজকর্ম করত অভিযুক্ত ইঞ্জিনিয়র।

Published by: Shubhagata Dey
First published: November 17, 2020, 9:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर