ক্রাইম

corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্ত্রী ও শাশুড়িকে খুন! সন্তানদের সামনে টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলা হল দেহ, গ্রেফতার অভিযুক্ত

স্ত্রী ও শাশুড়িকে খুন! সন্তানদের সামনে টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলা হল দেহ, গ্রেফতার অভিযুক্ত
প্রতীকী ছবি

স্ত্রী এবং শাশুড়িকে কুপিয়ে খুন করার পরে তাঁদের মৃতদেহ টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলে অভিযুক্ত।

  • Share this:

#ত্রিপুরা: ছোট ছোট সন্তানদের সামনে নিজের স্ত্রী এবং শাশুড়িকে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে। কেবল তাই নয়, খুন করার পরে তাঁদের মৃতদেহ টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলে ওই ব্যাক্তি। তারপরে বিষ খেয়ে নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করে অভিযুক্ত। ভয়ঙ্কর এই ঘটনাটি ঘটেছে ত্রিপুরার ঢালাই জেলায়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানিয়েছেন, অভিযুক্তের স্ত্রী গত চার মাস ধরে সন্তানদের সঙ্গে মায়ের বাড়িতেই গিয়েছিলেন। ওই ব্যক্তি এবং তার স্ত্রী’র ডিভোর্স হওয়ার কথা ছিল। পুলিশের সন্দেহ এই খুনের পিছনে দাম্পত্য কলহ জড়িয়ে রয়েছে। তবে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কিছু জানানো যাচ্ছে না। পুলিশের তরফে আরও জানানো হয়, ঘটনাটি প্রথমে এক স্থানীয় মহিলার নজরে আসে। শিশুদের প্রচন্ড চিৎকার শুনে ওই মহিলা বাড়ির ভিতরে ঢুকেছিলেন। মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় ব্যাক্তির স্ত্রী ও শাশুড়িকে পড়ে থাকতে দেখে মহিলা আঁতকে ওঠেন। বাচ্চারা বিছানায় বসে কেঁদে যাচ্ছিল। এরপর তিনিই প্রতিবেশীদের ডেকে নিয়ে আসেন এবং পুলিশে খবর দেন।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টিকে সামাল দেয় এবং ওই অভিযুক্তকে অজ্ঞান অবস্থায় পাশের ঘর থেকে উদ্ধার করে। আগরতলা জিবিপি হাসপাতালে ওই ব্যাক্তি এখন চিকিৎসাধীন। পুলিশ জানিয়েছে, দুই শিশুকেই ঢালাই শিশুকল্যাণ কেন্দ্রে আপাতত রাখা হয়েছে। পুলিশ কর্তৃপক্ষ আশিস দাশগুপ্ত জানিয়েছেন, "আমরা ওই ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করেছি এবং তার এখন চিকিৎসা চলছে। অভিযুক্তের শরীরে বিষ পাওয়া গিয়েছে, তবে এখন সে বিপদ থেকে মুক্ত। হামলার পিছনে আসল কী উদ্দেশ্য ছিল তা এখনও জানা যায়নি। অভিযুক্তের শরীর ভাল হলেই আমরা তাকে জেরা করব"। তিনি আরও বলেন, "কেবলমাত্র পুরো তদন্তের পরেই আমরা সঠিক সিদ্ধান্তে আসতে পারব"। এই ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের মধ্যে বিক্ষোভ তৈরি হয়। তাঁরা দাবি করেছে অভিযুক্তকে তাঁদের হাতে তুলে দেওয়া হোক। পরিস্থিতিকে সামাল দিতে ও ক্ষুব্ধ এলাকাবাসীদের শান্ত করার জন্য ত্রিপুরা স্টেট রাইফেলস সেনাদের মোতায়েন করা হয়েছে।

Published by: Somosree Das
First published: January 13, 2021, 9:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर