ক্রাইম

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিগ্রহ নিয়ে চম্পট, মন্তেশ্বরে এক রাতে চার মন্দিরে চুরি

বিগ্রহ নিয়ে চম্পট, মন্তেশ্বরে এক রাতে চার মন্দিরে চুরি

মন্দিরে তিনশো বছরের প্রাচীন কষ্টিপাথরের সূর্য মূর্তিও তুলে নিয়ে গেল দুষ্কৃতীরা৷

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বরে রাতের অন্ধকারে পরপর চারটি মন্দিরের যাবতীয় সামগ্রী নিয়ে চম্পট দিল দুষ্কৃতীরা।মন্দিরের তালা ভেঙে বিগ্রহের গয়না, প্রণামী বাক্সের টাকা, বাসন সহ সব কিছু নিয়ে চম্পট দিয়েছে দুষ্কৃতীরা।এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। কিছুদিন আগেই বেশ কয়েকটি মন্দিরে চুরির ঘটনা ঘটেছিল। এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের এই চুরির ঘটনায় এলাকার বাসিন্দারা ক্ষুব্ধ। জেলা পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। দুষ্কৃতীদের হদিশ পাওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। রাতে গ্রামীণ এলাকায় টহল বাড়ানো হয়েছে।

মন্তেশ্বরের গলাতুন অঞ্চলে এই চুরির ঘটনা ঘটেছে। সেখানের গোস্বামী পাড়ার গোপাল মন্দির, চক্রবর্তী পাড়ার নারায়ন মন্দির,একটি বারোয়ারি দুর্গা মন্দির ও রায়পাড়ার রঘুনাথ মন্দিরে রাতের অন্ধকারে লুটপাট চালায় দুষ্কৃতীরা।

বাসিন্দারা জানিয়েছেন, সকালে মন্দিরের গ্রিলের দরজার তালা ভাঙা দেখে প্রথমে চুরির বিষয়টি নজরে আসে। এরপর একের পর এক মন্দির থেকে যাবতীয় সামগ্রী চুরি যাওয়ার খবর আসতে থাকে।গোস্বামী পাড়া গোপাল মন্দির থেকে বিগ্রহের বাঁশি, সোনার বালা,নূপুর সহ আড়াই লক্ষ টাকার গয়না চুরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। ওই মন্দিরে তিনশো বছরের প্রাচীন কষ্টিপাথরের সূর্য মূর্তিও দুষ্কৃতীদের নিয়ে চম্পট দেয়।

বাসিন্দারা জানিয়েছেন,রাস পূর্ণিমা উপলক্ষে রবিবার রাতে মন্দিরে বিশেষ পুজো হয়েছিল। রাতে পুজো শেষে পুরোহিত মন্দিরে তালা লাগিয়ে বাড়ি যান। তারপরই গভীর রাতে এই চুরির ঘটনা ঘটে বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যান্য মন্দিরের প্রণামী বাক্স,টাকা, বিগ্রহের গয়না, তামা ও পিতল কাঁসার বাসনপত্র সবই নিয়ে গিয়েছে দুষ্কৃতীরা।

 Saradindu Ghosh

Published by: Debalina Datta
First published: December 1, 2020, 4:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर