corona virus btn
corona virus btn
Loading

নেচে মনোরঞ্জন করলে তবেই নেওয়া হবে শ্লীলতাহানির অভিযোগ, পুলিশ আধিকারিকের 'কীর্তি'তে স্তম্ভিত দেশ

নেচে মনোরঞ্জন করলে তবেই নেওয়া হবে শ্লীলতাহানির অভিযোগ, পুলিশ আধিকারিকের 'কীর্তি'তে স্তম্ভিত দেশ
প্রতীকী ছবি

ন্যক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের গোবিন্দনগর থানায়। যদিও ঘটনার দায় অস্বীকার করেছে পুলিশ।

  • Share this:

#গোবিন্দনগর: রক্ষকই যেখানে ভক্ষক!

শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানাতে থানায় গিয়েছিল বছর ১৬-র কিশোরী। সেখানে উপস্থিত পুলিশকর্মী এবং আধিকারিকদের সামনে নাচতে বলা হয়  তাকে। জানানো হয়, নেচে মনোরঞ্জন করার পরেই লিখিত অভিযোগ নেওয়া হবে। নচেৎ নয়।  ন্যক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের গোবিন্দনগর থানায়। যদিও ঘটনার দায় অস্বীকার করেছে পুলিশ।

কিন্তু কীভাবে জানাজানি হল গোটা ঘটনা? জানা গিয়েছে, ওই কিশোরী গোটা ঘটনার কথা জানিয়ে একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে। মুহূর্তের মধ্যে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। যা নজরে আসে পুলিশ এবং সংবাদ মাধ্যমের। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, স্থানীয় গোবিন্দনগর পুলিশ স্টেশনে বাড়িওয়ালার ভাগ্নের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে গিয়েছিল এক নাবালিকা। সেখানে থানার ইনস্পেক্টর এফআইআর দায়ের করার জন্য এই নাবালিকাকে তাঁর সামনে নেচে দেখাতে বলেন। (যদিও সেই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি News 18 Bangla)

নাবালিকার অভিযোগ, অভিযুক্ত ইনস্পেক্টর অনুরাগ মিশ্র তাকে থানায় ডেকে পাঠায় নির্দিষ্ট সময়ের বাইরে। সেখানে যাওয়ার পরেই তাকে নাচতে বলেন। কিশোরী আপত্তি জানালে তিনি নাকি সাফ জানান, নেচে দেখালে তবেই অভিযোগ গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, গোবিন্দনগর দাবাউলি এলাকায় একটি ভাড়া বাড়িতে নিজের পরিবারের সঙ্গে থাকে নিগৃহীতা ওই নাবালিকা। কিশোরীর মা জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরেই তাঁদের বাড়ি থেকে বের করে দিতে চাইছে বাড়ির মালিক। পাশাপাশি, মালিকের ভাগ্নে মেয়ের শ্লীলতাহানি করে দু'বার। তাই সেই অভিযোগ জানাতেই থানায় গিয়েছিল সে। কিন্তু সাহায্য পাওয়া তো দূর, থানায় গিয়ে আরও নিগ্রহের মুখে পড়তে হয় তাকে। যদিও সমস্ত ঘটনা অস্বীকার করে পুলিশ জানিয়েছে, থানার আধিকারিকে চাপে ফেলার জন্য এই মিথ্যে ভিডিও করেছে ওই কিশোরী।

Published by: Shubhagata Dey
First published: August 17, 2020, 6:26 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर