রুটিতে মিশছে রাধুনির থুতু! গা গুলিয়ে ওঠা ভিডিও ভাইরাল হতেই যা হল...

রুটিতে মিশছে রাধুনির থুতু! গা গুলিয়ে ওঠা ভিডিও ভাইরাল হতেই যা হল...

ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় পুলিশি তদন্ত৷

ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় পুলিশি তদন্ত৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: তৈরি হচ্ছে গরম গরম রুটি, তার মধ্যেই মুখ থেকে থুতু ফেলে মাখিয়ে দিচ্ছে রাধুনি! কিছুদিন আগে মিরটে এমন ঘটনা সামনে এসেছিল৷ এবার আবার রাজধানী দিল্লিতে একই ঘটনা সামনে এল৷ আগের ঘটনা ছিল একটি বিয়ে বাড়ির আর এবার দিল্লির এক হোটেলে রুটিতে থুতু ছিটিয়ে দিতে দেখা গেল দুই ব্যক্তিকে৷ একজন আটা মাখছে আর অন্যজন তা বেলে তান্দুরে দেওয়ার আগে, মুখ থেকে ফেলছে থুতু! তারপরই গরম তন্দুরে ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে রুটি এবং তৈরি হচ্ছে তুলতুলে নরম তন্দুরি রুটি৷ দেখে বোঝার কোনও উপায় নেই যে এর মধ্যে মিশেছে থুতু! ভিডিওতে যেই দু’জনকে দেখা যাচ্ছে তাদের মধ্যে নীল রঙের শার্ট পরা ব্যক্তি আটা মাখছে এবং অন্যজন রুটি তৈরি করছে৷ ভিডিও ভাইরাল হতেই নিন্দার ঝড় ওঠে৷ খোঁজ শুরু হয় এই দু’জনের৷ পুলিশ জানিয়েছে এদের মধ্যে একজনের নাম ইব্রাহিম, অন্যজন সাবি আনওয়ার৷

    ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় পুলিশি তদন্ত৷ জানা যায় খায়ালা এলাকার স্থানীয় চাঁদ হোটেলের এই ঘটনা৷ দু’জনের নাম পরিচয় জানা গিয়েছে৷ একজনের নাম ইব্রাহিম, অন্যজন সাবি আনওয়ার৷ এবং এরা দু’জনেই বিহারের কিষানগঞ্জের বাসিন্দা৷ ইতিমধ্যেই এদের গ্রেফতার করা হয়েছে এবং বিরুদ্ধে মামলা শুরু হয়েছে৷ তবে শুধু এই দুই কারিগড় নয়, হোটেলের মালিকের বিরুদ্ধেও তদন্ত হচ্ছে৷ এর পাশাপাশি জানা গিয়েছে যে চাঁদ হোটেলের লাইসেন্স ছাড়া বেআইনি ভাবেই চলছিল৷ ফলে হোটেলটিও বন্ধ করা হয়েছে৷

    এর আগে এক বিয়ে বাড়িতে দেখা গিয়েছে যে তন্দুরি রুটিতে মিশছে থুতু৷ রুটি তৈরি করে আগুনে দেওয়ার আগে তাতে থুতু দেওয়া হচ্ছিল৷ এটা না জেনে এই রুটিই তৃপ্তির সঙ্গে খেয়েছিলেন আমন্ত্রিতরা! কারণ তাঁরা তো আর চোখের সামনে দেখতে পাচ্ছিলেন না বা জানতে পারছিলেন না যে কীভাবে বানানো হচ্ছে গরম গরম তুলতুলে তন্দুরি রুটি! তাই তো এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর শেয়ার হয় এবং যারা দেখছেন তাঁরা সকলেই মন্তব্য করতে ছাড়েননি৷ কী ভাবে এই ব্যক্তি এমন কাজ করছে, সেই প্রশ্ন উঠেছিল৷ কথায় বলে মানুষকে অন্ন দেওয়ার সমান ঈশ্বর সেবা৷ নিজে হাতে করে এই মানুষটি রান্না করছে, আর তাতেই এভাবে থুতু দিচ্ছে! তা নিয়ে খুব শোরগোল পড়েছিল৷ কিন্তু তারপরও দিল্লির হোটেলের ঘটনায় সকলে স্তম্ভিত৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: