• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • জামাইয়ের রহস্যমৃত্যু! শ্বশুরবাড়ির পাশে গাছ থেকে উদ্ধার ঝুলন্ত দেহ

জামাইয়ের রহস্যমৃত্যু! শ্বশুরবাড়ির পাশে গাছ থেকে উদ্ধার ঝুলন্ত দেহ

যে চার জনকে হত্যা করা হয়েছে তাদের মধ্যে ১৩ এবং ৬ বছর বয়সি দুই বোন রয়েছে৷ নিহত দুই ভাইয়ের বয়স ১১ এবং ৮ বছর৷ পুলিশের অবশ্য দাবি, খুব শিগগিরই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হবে৷

যে চার জনকে হত্যা করা হয়েছে তাদের মধ্যে ১৩ এবং ৬ বছর বয়সি দুই বোন রয়েছে৷ নিহত দুই ভাইয়ের বয়স ১১ এবং ৮ বছর৷ পুলিশের অবশ্য দাবি, খুব শিগগিরই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হবে৷

প্রায় ১০ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল। বছর পাঁচের একটি কন্যাও রয়েছে তাঁদের। তার মধ্যেই দু’জনের পরিবারে প্রায়শই অশান্তি লেগে থাকত।

  • Share this:

    #মহিষাদল: শ্বশুরবাড়ির এলাকায় রাস্তার ধারে একটি সুপারি গাছ থেকে জামাইয়ের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মহিষাদলে।

    প্রায় ১০ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল। বছর পাঁচের একটি কন্যাও রয়েছে তাঁদের। তার মধ্যেই দু’জনের পরিবারে প্রায়শই লেগে থাকতো অশান্তি। যে কারণে পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদল থানার কালিকাকুন্ডু গ্রামে স্বামীর ঘর ছেড়ে ওই থানা এলাকারই মছলন্দপুরে বাপের বাড়িতে চলে আসে গৃহবধূ ঝর্না মাজি।

    কয়েকদিন আগেই যুবকটি হঠাৎ করেই জানতে পারে, তাঁর স্ত্রীকে আবারও চুপিসারে বিয়ে দিয়ে দিয়েছে তাঁরই শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। তারই প্রতিবাদ জানাতে গতকাল, বৃহস্পতিবার শ্বশুরবাড়িতে ছুটে এসেছিল বিশ্বজিৎ মাইতি(৩০)। যদিও দিনভর চেষ্টার পরেও তাঁর স্ত্রী-র কোথায় বিয়ে হয়েছে তা জানতে পারেনি ওই যুবক।

    এরপর আজ, শুক্রবার সকালে মছলন্দপুরের রাস্তার পাশের গাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে বিশ্বজিতের ঝুলন্ত দেহ। খবর পেয়ে মহিষাদল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পুলিশ গিয়ে মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। জানা গিয়েছে, রাস্তার পাশের একটি সরু সুপারি গাছের সঙ্গে ওই যুবকের গলায় সরু নাইলন দড়ি ফাঁস লাগানো অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে। তাঁর মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ঘটনাস্থলে সামান্য রক্তও পড়ে থাকতে দেখা যায়। বিস্তারিত জানার পরেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে এই ঘটনার বিষয়ে স্থানীয়রা কেউই মুখ খুলতে রাজি হননি।

    ইতিমধ্যে পুলিশ ওই যুবকের শ্বশুর কৃষ্ণ প্রসাদ দাসকে আটক করে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। সেই সঙ্গে দেহটিকে ময়না তদন্তের জন্য হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। এদিকে, তাঁর ছেলেকে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মৃত যুবকের মা সুচিত্রা মাইতি।

    তথ্য- সুজিত ভৌমিক

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: