• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • মালদহে শুটআউট, টাকা ছিনতাই বাধা দিতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ ব্যাঙ্ক কর্মী যুবক

মালদহে শুটআউট, টাকা ছিনতাই বাধা দিতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ ব্যাঙ্ক কর্মী যুবক

গুলিবিদ্ধ ব্যাঙ্ককর্মী ৷

গুলিবিদ্ধ ব্যাঙ্ককর্মী ৷

বৃহস্পতিবার সন্ধেয় ঘটনা ঘটেছে মালদহের চাঁচল থানার মুলাইবাড়ি থেকে ভক্তিপুর যাওয়ার রাস্তায়

  • Share this:

#মালদহ: ব্যাঙ্ক কর্মীকে গুলি করে টাকা ছিনতাই। ঘটনায় চাঞ্চল্য মালদহের চাঁচোলে। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় ঘটনা ঘটেছে মালদহের চাঁচল থানার মুলাইবাড়ি থেকে ভক্তিপুর যাওয়ার রাস্তায়। গুলিবিদ্ধ ব্যাঙ্ক কর্মী শ্রীকৃষ্ণ চৌধুরী (২৫)। ওই যুবকের কোমরে গুলি লাগে। নির্জন রাস্তায় পথ আটকায় তিন দুষ্কৃতী। ছিনতাইয়ে বাঁধা দিলে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। এরপর টাকার ব্যাগ নিয়ে চম্পট দেয় বলে অভিযোগ। গুলির শব্দ শুনে আশপাশের লোকজন এলাকায় ছুটে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই ব্যাঙ্ক কর্মীকে উদ্ধার করে।

প্রথমে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় চাঁচোল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় চিকিৎসকরা তাঁকে মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার পরামর্শ দেন। ঘটনার তদন্তে নেমেছে চাঁচল থানার পুলিশ। তবে কত টাকা ছিনতাই হয়েছে তা স্পষ্ট নয়।পুলিশের প্রাথমিক অনুমান দুষ্কৃতীরা আগাম পরিকল্পনা করেই যুবকের ওপর হামলা চালায়। ব্যাঙ্কের টাকা আদায় করে ওই যুবক মোটর বাইকে ফিরছিলেন। তাঁর সঙ্গে টাকা থাকার বিষয়ে সম্ভবত আগাম খবর ছিল দুষ্কৃতীদের কাছে।

বিভিন্ন গোষ্ঠীর কাছ থেকে টাকা আদায় করে প্রায়ই ওই রাস্তায় ফিরতেন ব্যাঙ্ক কর্মী। এদিন সন্ধেয় মোটর বাইকে করে চাঁচল থানার মুলাইবাড়ি থেকে ফিরছিলেন তিনি। যে রাস্তায় তাঁর উপরে হামলা হয় সেই রাস্তা অনেকটাই নির্জন। ঘটনাস্থলে রাস্তার আলোও তুলনামূলকভাবে কম। নির্জনতা ও অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে হামলা চালায় সশস্ত্র দুষ্কৃতীরা। প্রথমে পিঠে থাকা টাকার ব্যাগটি নিয়ে নেওয়ার চেষ্টা হয়। ওই যুবক বাঁধা দিলে খুব কাছ থেকে গুলি করে দুষ্কৃতীরা।

এরপর এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় তাঁরা। কিছু দূরে চায়ের দোকানে বসে থাকা স্থানীয়রা গুলির শব্দ পেয়ে ছুটে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই যুবককে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখেন। এদিকে চাঁচোল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে আনার পর ওই যুবকের চিকিৎসা শুরু হতে দেরি হয় বলে অভিযোগ ওঠে। পরে চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে স্থানান্তরের নির্দেশ দেন। পুলিশ জানিয়েছেন, গুলিবিদ্ধ ওই যুবক স্বাভাবিক কথা বলার অবস্থায় নেই। ফলে ঠিক কত টাকা লুট হয়েছে বা দুষ্কৃতীদের সম্পর্কে বিস্তারিত এখনও জানা সম্ভব হয়নি। ঘটনার পর ওই এলাকা থেকে ঢোকা ও বেরোনোর বিভিন্ন রাস্তায় তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। তবে ভরসন্ধ্যায় এভাবে গুলি করে টাকা লুটের ঘটনায় পুলিশের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

Sebak DebSarma

Published by:Arjun Neogi
First published: