ত্রিকোণ প্রেমের জের, তরুণীকে শ্বাসরোধ করে খুন, মিলল দগ্ধ দেহ

ত্রিকোণ প্রেমের জের, তরুণীকে শ্বাসরোধ করে খুন, মিলল দগ্ধ দেহ

স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ায় কর্মরত এক ১৯ বছর বয়সি তরুণীকে শ্বাসরোধ করে আগুনে পুড়িয়ে মারা হল৷

স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ায় কর্মরত এক ১৯ বছর বয়সি তরুণীকে শ্বাসরোধ করে আগুনে পুড়িয়ে মারা হল৷

  • Share this:
    #হায়দরাবাদ: ত্রিকোণ প্রেমের জেরে খুন নতুন নয়৷ তার আবারও হদিশ মিলল ৷ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ায় কর্মরত ১৯ বছর বয়সি তরুণীকে শ্বাসরোধ করে আগুনে পুড়িয়ে মারা হল৷  ঘটনায়  গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁর প্রাক্তন প্রেমিককে। ঘটনাটি ঘটেছে  অন্ধ্রপ্রদেশের অনন্তপুর জেলার। তরুণী নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ায়  অভিযুক্ত এই কাজ করতে পারে বলে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান। পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, অভিযুক্তের নাম গুটি রাজেশ ৷ সে পেশায় রাজমিস্ত্রি ৷ ওই যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল তরুণীর। তবে স্টেট ব্যাঙ্কে চাকরী পেয়ে যাওয়ার পরই যুবকের সঙ্গে দূরত্ব বাড়তে থাকে তরুণীর। এরপর রাজেশ জানতে পারে  নতুন সম্পর্কে জড়িয়েছেন ওই তরুণী৷ তারপরই স্নেহলতা নামে ওই তরুণীকে খুনের ছক কষে সে। কল রেকর্ডের তথ্য থেকে জানা গিয়েছে, গত এক বছরে স্নেহলতা-রাজেশের মধ্যে ১ হাজার ৬১৮ বার কথা হয়। পরিকল্পনা অনুযায়ী, গত মঙ্গলবার স্নেহলতাকে ফোন করে তার সাথে দেখা করতে বলে রাজেশ। এরপর নিজের বাইকে বসিয়ে একটি নির্জন জায়গায় যান তাঁরা। সেখানে তরুণীর নতুন সম্পর্ক নিয়ে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। শ্বাসরোধ করে খুন করা হয় স্নেহলতাকে। পুলিশ আরও জানিয়েছে, রাজেশ  স্নেহলতাকে তার নতুন সম্পর্ক নিয়ে নানা প্রশ্ন শুরু করে। এর ফলে দু’জনের মধ্যে তর্ক হয়। স্নেহলতাকে খুন করার পর পরিচয় গোপন করতে দেহটিকে পুড়িয়ে দেওয়ারও চেষ্টা করা হয়। দেহটি আংশিক ভাবে পুড়ে গিয়েছে। তবে  কোনও যৌন নির্যাতন বা সহবাসের প্রমাণ মেলেনি। স্নেহলতার পরিবার থেকে খবর দেওয়া হয় পুলিশে ৷এরপর তরুণীর কর্মস্থল থেকে প্রায় ২৫ কিমি দূরের একটি জায়গা থেকে দেহ উদ্ধার হয়। স্নেহলতার পরিবারের তরফ থেকে  অভিযোগ জানানো হয়েছে, রাজেশ প্রায়শই হুমকি দিত। এছাড়াও তাঁরা রাজেশের এক বন্ধু কার্তিকেও এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত বলে অভিযোগ করেছেন৷  আপাতত পুলিশি হেফাজতে রয়েছে রাজেশ৷ জেরার মুখে নিজের অপরাধ কবুল করেছে সে। ঘটনার সঠিক তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ৷
    Published by:Simli Dasgupta
    First published: