ক্রাইম

corona virus btn
corona virus btn
Loading

রোমহর্ষক ডাকাতি, এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলল অপারেশন!

রোমহর্ষক ডাকাতি, এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলল অপারেশন!
Photo-Representative

গুলি -বোমা নিয়ে একেবারে সিনেমার কায়দায় ভয়াবহ ডাকাতি৷

  • Share this:

#চাকুলিয়া:  চাকুলিয়া থানার সানিশুইয়া গ্রামে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।১০ থেকে ১২ ভরি স্বর্নলঙ্কার, দেড় কেজি রূপা এবং নগদ ৪০ থেকে ৫০ হাজার নগদ টাকা নিয়ে চম্পট দিয়েছে। গৃহকর্তাকে মারধর ছাড়াও ব্যপক বোমাবাজি করে। চলে গুলি।

ডাকাত দলের ছোড়া গুলিতে পারভেজ আলম নামে এক প্রতিবেশী জখম হয়েছেন। তাকে কিষানগঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বাড়ির লোকদেরও মারধর করে। একজনকে স্থানীয় চাকুলিয়া স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ইসলামপুর জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, স্বর্ণব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। স্বর্ণালঙ্কার ছাড়াও নগদ টাকা নিয়ে চম্পট হয়েছে। একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে জখম হয়েছেন। পুলিশি তদন্ত শুরু হয়েছে।

জানা গেছে মঙ্গলবার গভীর রাতে চাকুলিয়া থানার সানি শুইয়া গ্রামে প্রায় ১৫ থেকে ২০ জনের একটি ডাকাতদল স্বর্নব্যবসায়ী ইন্দর কুমার কর্মকারের বাড়িতে ডাকাতি করতে আসে। দরজা ভেঙে তারা বাড়ির ভেতরে  ঢুকে পরিবারের সদস্যদের মারধর শুরু করে বলে অভিযোগ। এরপরে আলমারি শোকেস ভাঙচুর শুরু করে ওই ডাকাতদলটি। প্রায় এক ঘণ্টা ধরে চলে তাণ্ডব। পরিবারের সদস্যদের চিৎকার-চেঁচামেচিতে স্থানীয় বাসিন্দারা ছুটে আসেন। চলে ব্যাপক গুলি ও বোমা বাজি। ডাকাতের ছোড়া গুলিতে গুরুতর জখম হন পারভেজ আলম নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা। ঘরের সমস্ত সোনা টাকা-পয়সার লুট করে চম্পট দেয় ওই ডাকাত দলটি। ঘটনার খবর পেয়ে চাকুলিয়া থানার কানকি ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে।

আহত পারভেজ আলমকে বিহারের কিষানগঞ্জ লায়ন্স ক্লাব মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। প্রতিবেশী হরিশঙ্কর কর্মকার জানান, ডাকাতদল টি রাতে এলোপাথাড়ি বোমা ছোড়ে। বোমের আওয়াজে ভয়ে গ্রামবাসিরা ঘর ছেড়ে বের হয় নি। যে সমস্ত গ্রামবাসীরা ঘর ছেড়ে বেরিয়ে এসেছেন তাদের গুলি করার ভয় দেখিয়েছেন। পারভেজ আলম নামে বাসিন্দা ভয়কে উপেক্ষা করে যেতে গিয়ে তাকে লক্ষ করে গুলি করে। দুটি গুলি তার শরীরে লাগে। একটি হাতে অন্যটি পেটে।হাতের গুলিটি বেরিয়ে গেলেও পেটের গুলিটি পেটেই আছে। গুরুতর অবস্থায় পারভেজকে কিষানগঞ্জ লায়ন্স ক্লাবের মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তর করা হয়।

ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। স্বর্ণালঙ্কার, রূপা এবং নগদ টাকা নিয়ে চম্পট দিয়েছে ডাকাত দলটি। একজন গুরুতর জখম হয়েছে। বাড়ির লোকদের মারধর করেছে। তবে কারো আঘাত গুরুতর নয়। পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও অভিযোগ জানানো হয়নি। এই ঘটনায় এলাকা জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Uttam Paul

Published by: Debalina Datta
First published: December 23, 2020, 4:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर