Rave Party: করোনার কালবেলায় রেভ পার্টিতে গিয়ে সাসপেন্ড পুলিশকর্মী, আটক ১৩০!

Rave Party: করোনার কালবেলায় রেভ পার্টিতে গিয়ে সাসপেন্ড পুলিশকর্মী, আটক ১৩০!

করোনার কালবেলায় রেভ পার্টিতে গিয়ে সাসপেন্ড পুলিশকর্মী, আটক ১৩০!

আলুর পুলিশ একটি গোপন সূত্র মারফত খবর পেয়ে ওই পার্টিতে হানা দেয়। সেখানে একটি রিসর্ট থেকে প্রায় ১৩০ জন যুবক-যুবতীকে আটক করেছে পুিলশ।

  • Share this:

    #কর্নাটক: কর্নাটকের হাসানে রেভ পার্টিতে গিয়েছিলেন পুলিশের হেড কনস্টেবল। আর তার জেরে আপাতত সাসপেন্ড করা হয়েছে ওই পুলিশকর্মীকে। অভিযুক্ত পুলিশকর্মীর নাম শ্রীলতা। মেঙ্গালুরুর এক পুলিশ স্টেশনে আর্থিক তছরূপ ও নার্কোটিকস বিভাগের হয়ে কাজ করতেন তিনি। গত ১০ এপ্রিল হাসানের আলুর তালুকের উদ্যোগে হওয়া রেভ পার্টিতে গিয়েছিলেন তিনি। সে কারণেই তাঁকে কাজ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

    মেঙ্গালুরুর পুলিশ কমিশনার এন শশী কুমার শনিবার বলেছেন, 'ছেলেক নিয়ে ওই পার্টিতে গিয়েছিলেন হেড পুলিশ কনস্টেবল শ্রীলতা। সেখানে যখন তল্লাশি চলছিল, তখন নিজের পরিচয় কাজে লাগিয়ে বেআইনি কাজ করেন তিনি। নিজেকে শহরের ক্রাইম ব্রাঞ্চের পুলিশকর্মী বলেও দাবি করেন তিনি।'

    আলুর পুলিশ একটি গোপন সূত্র মারফত খবর পেয়ে ওই পার্টিতে হানা দেয়। সেখানে একটি রিসর্ট থেকে প্রায় ১৩০ জন যুবক-যুবতীকে আটক করেছে পুিলশ। বেশিরভাগই বেঙ্গালুরু, মেঙ্গালুরু ও গোয়ার বাসিন্দা বলে জানিয়েছে পুলিশ। সেই পার্টি থেকে বিপুল পরিমাণে মদ, গাঁজা ও ড্রাগস উদ্ধার করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে ৫০টি দু-চাকার গাড়ি ও ২০টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

    বেশিরভাগ গাড়িতেই এমারজেন্সি স্টিকার মেরে যাতায়াত করা হচ্ছিল বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। অনলাইনে অ্যাপ্লিকেশন জমা দিয়ে বেশিরভাগ সদস্য এই পার্টিতে নাম নথিভুক্ত করেছিলেন। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত জায়গার নাম তাঁদের জানানো হয়নি বলে দাবি অনেকের। পরে একটি জায়গায় জমায়েত করার পর ওই রিসর্টে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁদের।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:
    0