• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • POLICE ARREST THREE IN BURDWAN FOR SELLING FALSE GOLD COINS DMG

Burdwan: আসলের বদলে নকল স্বর্ণমুদ্রা দিয়ে প্রতারণা! কোথায় চলছিল এমন কারবার?

এই কয়েন দিয়েই প্রতারণা করা হয়৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতরা ৩ লক্ষ টাকার বিনিময়ে পুরনো আমলের প্রায় ২০০ টি সোনার মুদ্রা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুর এলাকার বাসিন্দা বিমল কুমার মালকে (Burdwan)।

  • Share this:

#বর্ধমান: কম দামে স্বর্ণমুদ্রা দেওয়ার নামে মোটা টাকা হাতানোর বড়সড় চক্র চলছিল দীর্ঘদিন ধরেই। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সেই চক্রের পর্দাফাঁস করল পুলিশ । চক্রের এক চাঁই সহ ধৃত ৩।

স্বল্পমূল্যে সোনার কয়েন দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তিন লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গুসকরা ফাঁড়ির পুলিশ।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে  ধৃতদের নাম সাগর মণ্ডল, খোকন সাহা ও শেখ মেহের। তাদেরমধ্যে সাগর ও খোকনের বাড়ি আউশগ্রামের ভেদিয়ায়। আর বীরভূমের সাঁইথিয়ার ভ্রমরকোল গ্রামের বাসিন্দা মেহের। শনিবার ধৃতদের পাঁচদিনের জন্য পুলিশি হেফাজতে চেয়ে বর্ধমান আদালতে পাঠায় পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতরা ৩ লক্ষ টাকার বিনিময়ে পুরনো আমলের প্রায় ২০০ টি সোনার মুদ্রা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুর এলাকার বাসিন্দা বিমল কুমার মালকে। বিমলবাবু জানান, দিন কয়েক আগে রাজীব দাস বলে একজন তাঁর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করে। সে জানায় তার বাড়ির পাশে একটি পুকুর খননের কাজ করতে গিয়ে একটি কলসি উদ্ধার হয়। তাতে অনেকগুলি সোনার মুদ্রা পাওয়া গিয়েছে। সেগুলিকে কম টাকায় বিক্রি করে দিতে চায় সে।

তার পরেই গত সপ্তাহে গুসকরা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিমলবাবুকে সেই মুদ্রা দেখানো হয়। সোনা কিনা যাচাইয়ের জন্য পরীক্ষা করতে মুদ্রা থেকে এক টুকরো কেটে দেওয়া হয়। বিমলবাবুর অভিযোগ, পরীক্ষার জন্য দেওয়া মুদ্রার অংশটি সোনার হলেও পরে ৩ লক্ষ টাকার বিনিময়ে যে দুশোটি মুদ্রা দেওয়া হয় সেগুলি সোনার নয়। আর তা বুঝতে পেরেই  বিমলবাবু পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ জানান।

বিমলবাবুর অভিযোগের ভিত্তিতে ধৃতদের ভেদিয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে নগদ ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা, একটি নম্বর বিহীন মোটর বাইক ও ৬টি মোবাইল ফোন। তবে পুলিশের প্রাথমিকভাবে অনুমান, ধৃত তিনজনের মাথা মেহের। এবার তাদের হেফাজতে নিয়ে বাকি টাকার সন্ধান করার পাশাপাশি পুলিশ জানার চেষ্টা চালাবে এই চক্রের সঙ্গে আরও কারা জড়িত রয়েছে।

Published by:Debamoy Ghosh
First published: