অভিনব ডাকাতি, লুঠ টাকা আবার পালিয়ে যাওয়ার সময় এক পেটি মদও নিল!

অভিনব ডাকাতি, লুঠ টাকা আবার পালিয়ে যাওয়ার সময় এক পেটি মদও নিল!
Photo- News 18 Bangla

রাত আটটা নাগাদ দুটি মোটরসাইকেলে করে ৫ দুষ্কৃতী আসে মদ কেনার নাম করে।

  • Share this:

#দুবরাজপুর: মদের দোকানে ডাকাতির ঘটনা ধরা পড়ল সিসিটিভি তে। বীরভূমের দুবরাজপুরে ১৪ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর আলম বাবা মোড়ের কাছে হেতমপুর পচাই, দেশি ও বিদেশি মদের দোকানে লাঠি ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে চুরির অভিযোগ করেন দোকান মালিক রনজিত সিংহ।

শুক্রবার  রাত আটটা নাগাদ দুটি মোটরসাইকেলে করে ৫ দুষ্কৃতী আসে মদ কেনার নাম করে। এরপর তারা দোকানের মধ্যে ঢুকে দোকানের শাটার নামিয়ে দেয়। কর্মীদের ভয় দেখিয়ে বসিয়ে রাখে।  ওই মদের দোকানের দুই জায়গা থেকে প্রায় ৯০ থেকে ৯৫ হাজার টাকার নগদ, মোবাইল ও এক পেটি মদ নিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। ওই মদের দোকানের কাউন্টারের সামনে থাকা গ্রিলে তালা দেওয়া ছিল না, ফলে সহজেই দোকানের ভেতর ঢুকে পড়ে দুষ্কৃতীরা। দুবরাজপুর থানা অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে দুবরাজপুর থানার পুলিশ। জাতীয় সড়কের ধারে এই ধরনের মদের দোকানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা করতে আগেই মদের দোকানের মালিকদের বলেছিল পুলিশ। তা সত্ত্বেও কিভাবে দোকানের ভেতরে এইভাবে দুষ্কৃতীরা ঢুকে গেল তা নিয়ে পুলিশ ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে। শুধু টাকা নয় , টাকার সাথে মদের পেটি ও নিয়ে চম্পট দিয়েছে ওই ডাকাতদল। জাতীয় সড়কের আশেপাশে পুলিশ তল্লাশি শুরু করেছে যাতে করে ডাকাতদের সম্পর্কে কোন চিহ্ন পাওয়া যায়।

তবে ওই মদের দোকানের মালিক যে সিসিটিভি ফুটেজ পুলিশকে জমা দিয়েছে পুলিশ ওই সমস্ত দুষ্কৃতীদের আচরণ দেখে বোঝার চেষ্টা করছে।  যখন এই ঘটনা ঘটে তখন রাস্তা অনেকটাই শুনশান ছিল তার কারণ হঠাৎ করে বেড়ে যাওয়ায় রাস্তাঘাটে লোক চলাচল কম সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েছে দুষ্কৃতীরা। তবে দোকানের ভেতরে ঢুকে কর্মীদের কিভাবে ভয় দেখিয়ে ছিল ওই দুষ্কৃতী দলের সঙ্গে কোন আগ্নেয়াস্ত্র ছিল কিনা স্থানীয় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। দুবরাজপুর থানার পুলিশ আশাবাদী,  ধরা পড়বে এই দুষ্কৃতীরা।


Supratim Das

Published by:Debalina Datta
First published: