নাচ শেখানোর নাম করে ছাত্রীর সঙ্গে অশ্লীল আচরণ, গ্রেফতার শিক্ষক

নাচ শেখানোর নাম করে ছাত্রীর সঙ্গে অশ্লীল আচরণ, গ্রেফতার শিক্ষক

২৩ বছর বয়সী ছাত্রী থানায় গিয়ে শিক্ষকের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির মামলা করেন। তারপরেই পুলিশ ওই ব্যাক্তিকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

২৩ বছর বয়সী ছাত্রী থানায় গিয়ে শিক্ষকের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির মামলা করেন। তারপরেই পুলিশ ওই ব্যাক্তিকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

  • Share this:

    #দিল্লি: নাচ শেখানোর নাম করে ছাত্রীর সঙ্গে অশ্লীল কথা বার্তা এবং জোরজবস্তি। বার বার হেনস্থা করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হল শিক্ষককে। ঘটনাটি ঘটেছে ১৪ ডিসেম্বর দিল্লিতে। পুলিশ সূত্রে জানান হয়েছে, ২৩ বছর বয়সী ওই ছাত্রী তাঁর মায়ের সঙ্গে থানায় গিয়ে শিক্ষকের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির মামলা করেন। তারপরেই পুলিশ ওই ব্যাক্তিকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। ২৩ বছর বয়সের ওই ছাত্রী দিল্লির স্যান মার্টিন মার্গের কথ্যক কেন্দ্রের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী। তিনি নৃত্য বিষয় নিয়ে ডিপলোমা করছেন। বেশ কিছু দিন ধরেই তাঁকে হেনস্থা করা হচ্ছিল বলে পুলিশকে জানান। ক্লাসের ভিতরে কেউ না থাকাকালীন তাঁর ডেকে নিয়ে কথা বলা বা ক্লাস শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও বেশিক্ষণ আটকে রাখা, এই বিষয় গুলি তিনি কিছু দিন ধরে লক্ষ করছিলেন। কেবল তাই নয়, ওই শিক্ষক নোংরা মেসেজও পাঠাতেন তাঁকে, পুলিশের কাছে ওই ছাত্রী জানিয়েছেন। ১৪ ডিসেম্বর ঘটনাটি আরও খারাপের দিকে এগোয়। ওই ব্যক্তি ক্লাসের নাম করে তাঁকে একা ঘরে নিয়ে গিয়ে তাঁর সঙ্গে জোরাজুরি করেন, গায়ে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। ওই মহিলা আর সহ্য করতে না পেরে বাড়িতে গিয়ে মাকে জানায়। তারপরে মায়ের সঙ্গে থানায় গিয়ে শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। ডেপুটি পুলিশ কমিশনার এইশ সিঙ্ঘল জানিয়েছেন, ‘’ অভিযুক্তের নাম রবি শঙ্কর উপাধ্যায়, বয়স ৫২। তিনি দিল্লিতে দিলশাদ গার্ডেনের বাসিন্দা। ওই যুবতী এফআইআর করার পরে আমরা তাঁকে গ্রেফতার করি। এখন ওই ব্যাক্তি পুলিশ হেফাজতেই রয়েছেন। এই মামলাটি আইনের ৩৫৪ এবং ৫০৯ ধারার আওতায় ফেলা হয়েছে’’। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চালানো হচ্ছে, তবে ওই ব্যক্তির তরফে এখনও কিছু প্রকাশ্যে জানান হয়নি।

    Published by:Somosree Das
    First published: