পণের দাবিতে দিনের পর দিন অত্যাচার, গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু ! গ্রেফতার স্বামী ও শ্বশুর

পণের দাবিতে দিনের পর দিন অত্যাচার, গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু ! গ্রেফতার স্বামী ও শ্বশুর

Representational Image

ঘটনায় অভিযুক্ত মাধুরীর স্বামী মিঠুন মন্ডল, শ্বশুর নগেন্দ্র মন্ডলকে গ্রেফতার করে অশোকনগর থানার পুলিশ। মাধুরীর দেহ বারাসতে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

  • Share this:

    #অশোকনগর: ফের গৃহবধু খুনের অভিযোগে গ্রেফতার স্বামী ও শ্বশুর। উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরে পুটিয়া এলাকার বাসিন্দা কঙ্কন বিশ্বাস। তার মেয়ে মাধুরী মন্ডল (২০)-এর দু’বছর আগে বিয়ে হয় অশোকনগর সেনডাঙা জয়পুল এলাকার মিঠুন মন্ডলের সঙ্গে।অভিযোগ, বিয়ের পর থেকে পণের জন্য চাপ দিতে স্বামী । বাবা কঙ্কন বিশ্বাস জামাইয়ের চাহিদা পূরণ করার চেষ্টা করতেন। জামাইয়ের চাহিদা দিনের পর দিন বেড়েই যেতে থাকে। বাবা কঙ্কন বিশ্বাস বলেন, ‘‘ আমি দিনমজুরের কাজ করি, সব সময় আমি চাহিদা মেটাতে পারতাম না। দিতে না পারায় জামাই আক্রোশ মেটাতো তার মেয়ের উপর।’’ শারীরিক ও মানসিকভাবে অত্যাচার চালাত বলেও তার অভিযোগ । মাধুরীর স্বামী মিঠুন মন্ডল, শ্বশুর নগেন্দ্র মন্ডল, শাশুড়ি পুতুল মন্ডলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

    বুধবার ফোনে খবর পান মেয়ে মাধুরী অসুস্থ। অশোকনগর হাসপাতালে ভর্তি। সেখানে গিয়ে জানতে পারেন মাধুরী গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মাধুরীর পরিবারের অভিযোগ, ‘‘আমার মেয়েকে গলা টিপে শ্বাসরোধ করে মারা হয়েছে। তারপর গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে দিয়েছে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। মাধুরীর পরিবারের পক্ষ থেকে গতকাল, বুধবার রাতে অশোকনগর থানায় স্বামী মিঠুন মন্ডল,শ্বশুর নগেন্দ্র মন্ডল, শাশুড়ি পুতুল মন্ডল নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়।

    এরপর ঘটনায় অভিযুক্ত মাধুরীর স্বামী মিঠুন মন্ডল, শ্বশুর নগেন্দ্র মন্ডলকে গ্রেফতার করে অশোকনগর থানার পুলিশ। মাধুরীর দেহ বারাসতে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: