পণে মোটরবাইক না পেয়ে বিয়ে ভেস্তে দিল বর, অপমানে আত্মঘাতী কনে!

পণে মোটরবাইক না পেয়ে বিয়ে ভেস্তে দিল বর, অপমানে আত্মঘাতী কনে!

প্রতীকী ছবি

প্রেম করেই বিয়ে করতে চলেছিলেন শামা। আতিকের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই সম্পর্ক ছিল তাঁর। তাঁদের সম্পর্কের কথা বাড়িতে জানাজানি হতেই দুই পরিবার বিয়ে ঠিক করে ফেলে।

  • Share this:

    #বরেলি: বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু যৌতুকে মোটরবাইক না পাওয়ায় বিয়ে ভেস্তে দেয় হবু বর। বিয়ে ভেস্তে যাওয়ার লজ্জা ও অপমানে নিজেকে শেষ করে দিলেন কনে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁর উজহানি এলাকায়। মৃতার নাম শামা জাহান। সাকরি জঙ্গলের কাছে একটি গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তিনি।

    প্রেম করেই বিয়ে করতে চলেছিলেন শামা। আতিকের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই সম্পর্ক ছিল তাঁর। তাঁদের সম্পর্কের কথা বাড়িতে জানাজানি হতেই দুই পরিবার বিয়ে ঠিক করে ফেলে। শনিবার আতিক ও তার পরিবারের তরফে শামার বাড়িতে মোটরসাইকেল দিতে হবে বলে দাবি জানানো হয়। গ্রামের মোড়ল ও অন্যদের নিয়ে এর পরই একটি বৈঠক করে দুই পরিবার। সেখানেই বিয়ে ভেস্তে দেয় আতিক।

    বৈঠকে শামার পরিবারের তরফে জানানো হয়, অনেক ছোটবেলাতেই শামার বাবা প্রয়াত হয়েছেন। পাঁচ সন্তানকে অনেক কষ্ট করে বড় করেছেন মা। দিল্লিতে গিয়ে দুই ভাই পরিযায়ী শ্রমিকের কাজ করে রোজগার করে। তাঁদের পক্ষে বিয়ের খরচের পাশাপাশি পণ হিসেবে মোটরসাইকেল দেওয়া সম্ভব না।

    তার পরেই বিয়ে ভেস্তে দেয় আতিক। সোমবার সকালে ঘর থেকে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় শামার। মৃতার বোন জাহান জানিয়েছেন, পরিবারের কেউই এই বিয়েতে খুব একটা রাজি ছিলেন না। শুধুমাত্র শামার কথা ভেবেই এই বিয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছিল পরিবার।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: