কী কাণ্ড! ATM খুলতে না পেরে গোটা মেশিন তুলে পালাল দুষ্কৃতীদল

কী কাণ্ড! ATM খুলতে না পেরে গোটা মেশিন তুলে পালাল দুষ্কৃতীদল

প্রতীকী ছবি

সত্যি, অবিশ্বাস্য ঘটনা। তামিলনাড়ুতে একটি এটিএম লুঠ করতে গিয়ে মেশিন না খুলতে পারার রাগে, গোটা মেশিনটাই তুলে পালিয়েছে চার দুষ্কৃতী।

  • Share this:

    #তামিলনাড়ু: সত্যি, অবিশ্বাস্য ঘটনা। তামিলনাড়ুতে একটি এটিএম লুঠ করতে গিয়ে মেশিন না খুলতে পারার রাগে, গোটা মেশিনটাই তুলে পালিয়েছে চার দুষ্কৃতী। ঘটনাটি ঘটেছে তামিলনাড়ুর তিরুপ্পুর এলাকায়। তিরুপ্পুর-উথুক্কুলি রোডের সরকার পেরিয়ানলায়মে অবস্থিত এই এটিএম-এর কাউন্টারটি। সেখানে কয়েকদিন পর টাকা তুলতে গিয়ে এক ব্যক্তি গোটা এটিএম তছনছ হয়ে রয়েছে দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। তারপরেই ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে।

    মাস্ক পরা অবস্থায় এটিএম কাউন্টারে ঢুকে গোটা মেশিন তুলে একটি গাড়িতে তুলে পালায় দুষ্কৃতীরা। রবিবার বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ ঘটে এই ঘটনা। গোটা দৃশ্যই সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। ফুটেজে দেখা গিয়েছে, চার জন দুষ্কৃতী মাস্ক পরে কাউন্টারে ঢোকে। প্রথমে বেশ কিছুক্ষণ সেটি ভাঙার চেষ্টা করে। তা না হলে গোটা মেশিনটিই তুলে নিয়ে গাড়িতে রাখে এবং দড়ি দিয়ে সেটিকে বেঁধে নেয়।

    ব্যাঙ্ক অফ বরোদার ওই এটিএম সূত্রে খবর, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ওই মেশিনে ১৫ লক্ষ টাকা ভরা হয়েছিল। প্রায় দেড় লক্ষ টাকা মতো ওই মেশিনে রবিবার পর্যন্ত ছিল। প্রশ্ন উঠছে, দিনের বেলায় একটি নিরাপত্তারক্ষীহীন এটিএমে এভাবে লুঠ চললেও, কীভাবে পুলিশ টের পেল না এমন ঘটনা? এতটা সময় ধরে সেখানে লুঠপাট চালানো হলই কী ভাবে? কেনই বা নিরাপত্তারক্ষী রাখা হয়নি ওই কাউন্টারে? তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে।

    পুলিশ ইরোদে জেলায় একটি মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশি নিরাপত্তা নিয়ে ব্যাপক গাফিলতি অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:
    0