Home /News /crime /
Vikas Dubey Encounter: এটা কি সাজানো এনকাউন্টার ? বিকাশের মৃত্যুতে উঠছে যে প্রশ্নগুলি, দেখে নিন

Vikas Dubey Encounter: এটা কি সাজানো এনকাউন্টার ? বিকাশের মৃত্যুতে উঠছে যে প্রশ্নগুলি, দেখে নিন

এসটিএফ অবশ্য প্রেস বিবৃতিতে দাবি করেছে, কানপুরের সচেন্ডি থানা এলাকায় আচমকা পুলিশের গাড়ির সামনে গরু মোষের পাল চলে আসে৷ দীর্ঘ যাত্রায় ক্লান্ত গাড়ির চালক গরু, মোষগুলিকে বাঁচাতে দ্রুত গাড়িটি পাশ কাটিয়ে বেরোতে যান৷ তখনই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি উল্টে যায়৷

এসটিএফ অবশ্য প্রেস বিবৃতিতে দাবি করেছে, কানপুরের সচেন্ডি থানা এলাকায় আচমকা পুলিশের গাড়ির সামনে গরু মোষের পাল চলে আসে৷ দীর্ঘ যাত্রায় ক্লান্ত গাড়ির চালক গরু, মোষগুলিকে বাঁচাতে দ্রুত গাড়িটি পাশ কাটিয়ে বেরোতে যান৷ তখনই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি উল্টে যায়৷

পুলিশ সূত্রে খবর, গাড়ি দুর্ঘটনার পর পুলিশের আগ্নেয়াস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করেই গুলি চালায় বিকাশ। জখম হন চার পুলিশকর্মী। পাল্টা গুলি চালায় পুলিশ।

  • Share this:

    #কানপুর: বৃহস্পতিবার গ্রেফতার। শুক্রবার এনকাউন্টারে মৃত্যু ধৃত ডন বিকাশ দুবের। কানপুরে আনার পথে উল্টে যায় STF-এর গাড়ি। দুর্ঘটনার সুযোগ নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে বিকাশ। পাল্টা পুলিশের গুলিতে জখম হয় ডন। হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিকাশকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

    পুলিশ সূত্রে খবর, গাড়ি দুর্ঘটনার পর পুলিশের আগ্নেয়াস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করেই গুলি চালায় বিকাশ। জখম হন চার পুলিশকর্মী। পাল্টা গুলি চালায় পুলিশ। গ্রেফতারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই এনকাউন্টারে মৃত গ্যাংস্টার।

    বিকাশ দুবের এনকাউন্টার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। 'গাড়ি ওলটায়নি, সত্য বেরোলে সরকার উল্টে যেত।' ট্যুইট অখিলেশ যাদবের। অপরাধী খতম হলেও অপরাধীদের প্রশয়দাতাদের কী হবে? প্রশ্ন প্রিয়ঙ্কা বঢরার। 'এনকাউন্টারের আশঙ্কাই সত্যি হল।' ট্যুইট দিগ্বিজয় সিংয়ের। 'মৃত মানুষ কোনও কথা বলে না।' খোঁচা ওমর আবদুল্লার। বহুজন সমাজবাদী পার্টির নেত্রী তথা উত্তরপ্রদেশের আরেক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মায়াবতী বিকাশ দুবের 'দুর্ঘটনা ও এনকাউন্টারে’ মৃত্যুর বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানে সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন ৷

    বিকাশের মৃত্যু নিয়ে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন উঠেছে ৷ তাতে এটা এনকাউন্টারে মৃত্যু কী না, তা নিয়ে রহস্য থাকছেই ৷ প্রশ্নগুলি হল, বিকাশের গাড়িতে ৫ জন পুলিশকর্মী ছিলেন ৷ বিকাশের পাশে এবং সামনে বসে ৷ তাহলে কী ভাবে ওই অবস্থায় এক পুলিশকর্মীর হাতিয়ার ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করতে পারে বিকাশ ? এত বড় দাগী আসামীর হাতে হাতকড়াও পরানো ছিল না ? এর পাশাপাশি নিয়ম হচ্ছে অপরাধী পালানোর চেষ্টা করলে তার শরীরের নিম্নাংশে গুলি করতে হয় ৷ কোনওভাবেই বুকে গুলি করা যায় না ৷ তাহলে উত্তরপ্রদেশের পুলিশের এমনই নিশানা যে ৩টে গুলিই বিকাশের বুকে লাগে ! বিকাশের পায়ে চোট থাকায় দৌড়ে পালানোটা তার পক্ষে একেবারেই সহজ কাজ নয় ৷ তা সত্ত্বেও ২০০ মিটার পর্যন্ত দৌড়ে সে পালাল কী ভাবে ?

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published:

    Tags: Vikas Dubey

    পরবর্তী খবর