মলদ্বারে 'পাম্প' করে ঢোকানো হল হাওয়া! চরম অত্যাচারে মৃত্যু শ্রমিকের

মলদ্বারে 'পাম্প' করে ঢোকানো হল হাওয়া! চরম অত্যাচারে মৃত্যু শ্রমিকের

পরিবারকে জানানো হয় যে, ধাকাড় গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় ভুগছিলেন৷ যদিও ৪৮ ঘণ্টা পর জ্ঞান ফেরে তাঁর৷ এবং পরিবারকে পুরো ঘটনাটি জানান তিনি৷

পরিবারকে জানানো হয় যে, ধাকাড় গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় ভুগছিলেন৷ যদিও ৪৮ ঘণ্টা পর জ্ঞান ফেরে তাঁর৷ এবং পরিবারকে পুরো ঘটনাটি জানান তিনি৷

  • Share this:

    #ভোপাল: অমানবিক অত্যাচার! কাজ করে তার পারিশ্রমিক চাইতে গিয়ে নারকীয় যন্ত্রণার মধ্যে পড়তে হল শ্রমিককে৷ যার জেরে মৃত্যু হল তার৷ ঘটনা মধ্যপ্রদেশের শিবপুরি জেলার গাজিগাড ধোরিয়া গ্রামের৷ শ্রমিকের নাম পরমানন্দ ধাকাড়৷ পাথর ভাঙার কাজ করতেন তিনি৷ মাস খানেক আগে যে অত্যাচারের মুখে পড়েন পরমানন্দ, তাতে যুক্ত ছিল তার মালিক এবং কারখানার আরও ৪ শ্রমিকও৷ এমনই জানা গিয়েছে৷

    ৮ নভেম্বর ধাকাড় মালিকের কাছে পারিশ্রমিক চাইতে যান তিনি৷ টাকা না দিয়ে চূড়ান্ত অপমান করে মালিক৷ তারপর কথা কাটাকাটি শুরু হওয়ায় ধাকাড়ের মলদ্বারে পাম্প দিয়ে হাওয়া ঢুকিয়ে দেওয়া হয়৷ এমনই অভিযোগ৷ মালিকের সঙ্গে এই কাজে যুক্ত হয় কারখানার আরও ৪ জন৷ সকলেই ধারাড়ের ওপর জোর খাটিয়ে এমন ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটানো হয়৷ মূলত শ্রমিকের মুখ বন্ধ করতে এমন অত্যাচার চলে তার ওপর৷ তবে এই ঘটনায় খুবই অসুস্থ হন ধাকাড়৷

    এরপর থেকে তার অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে৷ সেই দেখে গোয়ালিওরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়৷ যদিও পরিবারের থেকে বিষয়টি গোপন করা হয়েছিল৷ তারা কিছুই জানতে পারেননি৷ বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক কোনও সাহায্য করতে না পারায়, জেলার হাসপাতালে তাকে স্থানান্তরিত করতে হয়৷ এরপর খবর দেওয়া হয় পরিবারকে৷

    পরিবারকে জানানো হয় যে, ধাকাড় গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় ভুগছিলেন৷ যদিও ৪৮ ঘণ্টা পর জ্ঞান ফেরে তাঁর৷ এবং পরিবারকে পুরো ঘটনাটি জানান ৷ তার ওপর অত্যাচারের ঘটনাটি পরিবারকে জানান তিনি৷ সকলে চমকে ওঠে এই খবর শুনে৷ থানায় অভিযোগ জানান তাঁরা৷ কারখানার মালিক রাজেশ রাইয়ের নামে অভিযোগ জানানো হয়৷ এছাড়াও রবি, পিন্টু এবং পাপ্পু খানের নামেও অভিযোগ করা হয়েছে৷

    Published by:Pooja Basu
    First published:

    লেটেস্ট খবর