পুরনো খুনের বদলা? দিনের আলোয় 'জামিনে মুক্ত' চিকিৎসক দম্পতির খুন রাজস্থানে!

চিকিৎসক দম্পতি খুন প্রতীকী ছবি৷

পুলিশের অনুমান, প্রতিশোধ নিতেই ওই দম্পতিকে খুন করা (Couple Shot Dead) হয়েছে। চিকিৎসক দম্পতির ((Doctor Couple) বিরুদ্ধে দুই বছর আগে এক ২৫ বছর বয়য়ী যুবতী এবং ৬ বছর বয়সী শিশুকে খুনের অভিযোগ দায়ের হয়। চিকিৎসকের সঙ্গে ওই মহিলার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল বলেই সন্দেহ।

  • Share this:

    #ভরতপুর : এ যেন নেটফ্লিক্স বা প্রাইমের কোনও সিরিজের প্লট! রীতিমত সিসিটিভি (CCTV Camera) ক্যামেরার সামনে মাঝ রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করিয়ে চিকিত্সক দম্পতিকে (Doctor Couple) গুলি করে খুন (Shot Dead) করল দুষ্কৃতী। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের ভরতপুরে। মৃত ড সুদীপ গুপ্তা এবং তাঁর স্ত্রী ড সীমা গুপ্তা বর্তমানে জামিনে মুক্ত ছিলেন। তাঁদের বিরুদ্ধে এক ২৫ বছর বয়য়ী যুবতী এবং ৬ বছর বয়সী এক শিশুকে খুন করা অভিযোগ ছিল। এই অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের ২০১৯ সালে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। তদন্তকারীদের প্রাথমিক সন্দেহ, সেই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত এই খুনের ঘটনাটি।

    জানা গিয়েছে, শুক্রবার বিকেল ৪.৪৫ নাগাদ ভরতপুরের একটি ট্রাফিক সিগন্যালে আচমকাই গাড়ির সামনে বাইক নিয়ে দাঁড়িয়ে পড়ে দুই ব্যক্তি। জানলার কাঁচ নামাতেই তাঁরা এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে। ঘটনাস্থলেই মারা যান ওই দম্পতি। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

    জানা গিয়েছে, দুষ্কৃতীরা বেশ কিছুক্ষণ ধরেই ড সুদীপ গুপ্তার গাড়িকে অনুসরণ করছিল। গাড়িতে সুদীপের স্ত্রী ড সীমা গুপ্তাও ছিলেন। গাড়ি চালাচ্ছিলেন সুদীপ। একটি মোড়ে এসে সুদীপ গাড়িটিকে ধীরে করলে দুষ্কৃতীরা পিছন থেকে এসে তাঁদের গাড়ির সামনে এসে সেটিকে আটকে দাঁড়ায়। এরপরই চলতে থাকে গুলি। এলাকার সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে এই ঘটনার একটি ভিডিয়ো ফুটেজ সামনে আসে। যাতে দেখা যায় বাইক থেকে এক সাদা শার্ট পরা ব্যক্তি নামল গাড়ির সামনে। তার মুখে একটি গোলাপী গামছা দড়ানো ছিল। শার্টের নীচে থেকে বন্দুক বের করে সে গুলি চালাতে শুরু করল।

    প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, প্রতিশোধ নিতেই ওই দম্পতিকে খুন করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, চিকিৎসক দম্পতির বিরুদ্ধে দুই বছর আগে এক মহিলাকে খুনের অভিযোগ দায়ের হয়। চিকিৎসকের সঙ্গে ওই মহিলার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল বলেই সন্দেহ। ওই চিকিৎসকের স্ত্রী ও মায়ের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ ওঠে। যদিও সেই মামলার নিষ্পত্তি এখনও হয়নি। শুক্রবারের এই খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তি দুই বছর আগে খুন হওয়া ওই মহিলার ভাই বলেই প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: