ক্রাইম

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

থানার মধ্যে মাথা কামিয়ে দলিত যুবককের ওপর পাশবিক নির্যাতন, কাঠগড়ায় অন্ধ্রপ্রদেশ পুলিশ, সাসপেন্ড ২

থানার মধ্যে মাথা কামিয়ে দলিত যুবককের ওপর পাশবিক নির্যাতন, কাঠগড়ায় অন্ধ্রপ্রদেশ পুলিশ, সাসপেন্ড ২

লজ্জাজনক ঘটনাটি ঘটেছে অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলার সীতানগরম থানায়। গুরুতর আহত অবস্থায় বর্তমানে ওই দলিত যুবক ভারা প্রসাদ রাজামুন্দ্রে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

  • Share this:

#হায়দরাবাদ: সম্প্রতি তুতিকোরিনে পুলিশি হেফাজতে বাবা-ছেলের মৃত্যুতে উত্তাল হয়ে ওঠে দেশ। ঘটনার তদন্তভার বর্তায় কেন্দ্রীর গোয়েন্দা সংস্থার ওপর। তার রেশ কাটার আগেই ফের হেফাজতে নির্যাতনের অভিযোগ। এবারে কাঠগড়ায় অন্দ্রপ্রদেশ পুলিশ। স্থানীয় এক নেতার সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েছিলেন এক দলিত যুবক। ফল স্বরূপ তাঁকে বাড়ি থেকে থানায় তুলে নিয়ে গিয়ে চলল পাশাবিক অত্যাচার। নাপিত ডেকে কামিয়ে করে দেওয়া হল মাথা, কামানো হয়েছে গোঁফ।

রবিবার রাতে লজ্জাজনক ঘটনাটি ঘটেছে অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলার সীতানগরম থানায়। গুরুতর আহত অবস্থায় বর্তমানে ওই দলিত যুবক ভারা প্রসাদ রাজামুন্দ্রে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনার তদন্তে নেমে সাসপেন্ড করা হয়েছে থানার সাব ইন্সপেক্টর শেখ ফিরোজ-সহ এক কনস্টেবলকে। এ দিকে, নেতার ট্রাক থামানোর অভিযোগে ভারা প্রসাদের নামেও মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

সাংবাদিকদের ভারা প্রসাদ জানিয়েছেন, রবিবার তাঁর এক আত্মীয় মারা যান। তাঁর শেষকৃত্য যখন চলছিল, তখন সেই জায়গা দিয়েই একটি বালি বোঝাই ট্রাক যাওয়ার চেষ্টা করে। দলিত সম্প্রদায়ের ওই যুবকের দাবি, তিনি ওই ট্রাক চালককে দেহ না সরানো পর্যন্ত কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে বলেন। কিন্তু ওই ট্রাকচালক তাতে রাজি না হয়ে তর্ক জুড়ে দেন। যদিও সকলের উপস্থিতিতে সাময়িকভাবে ঘটনাটি মিটে যায়। কিন্তু তার ঠিক এক ঘণ্টার মধ্যে ভারা প্রসাদের বাড়িতে পৌঁছন স্থানীয় ওয়াইএসআরসিপি নেতা  এবং তাঁকে হুমকি দিতে শুরু করেন। আর তখনই বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন ভারা প্রসাদ।

ভারা প্রসাদের অভিযোগ, ওই নেতা বাড়ি থেকে চলে যাওয়ার ঠিক পরের দিন স্থানীয় থানার এসআই এবং দুই কনস্টেবল তাঁকে এবং পরিবারের আরও দুই সদস্যকে বাড়ি থেকে থানায় তুলে নিয়ে যান জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। আর তারপরেই তাঁকে বেল্ট দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। এরপর নাপিত ডেকে মাথা, গোঁফ কামিয়ে দেয় পুলিশ।

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই ময়দানে নেমে পড়ে বিরোধীরা। বিরোধী নেতা চন্দ্রবাবু নাইড়ু সাফ জানান, "অন্দ্রপ্রদেশে জঙ্গলরাজ চলছে। পুলিশ শাষকদলের হাতের পুতুলে পরিণত হয়েছে।" এই ঘটনায় ভারা প্রসাদের সমর্থনে দাঁড়িয়েছে তেলুগু দেশম পার্টি। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দোষীরা যাতে উপযুক্ত এবং কঠোর শাস্তি পাবে দোষ প্রমাণিত হলে।

Published by: Shubhagata Dey
First published: July 22, 2020, 2:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर