• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • CHILD FORCED TO LICK HOT AXE HEAD TO PROVE INNOCENCE IN PAKISTAN SDG

Pakistan Brutality|| 'কেটলি চুরি করেনি' প্রমাণ দিতে শিশুকে গরম কুঠার চাটালো মাতব্বররা, জঘন্য অপরাধে চাঞ্চল্য

প্রতীকী ছবি।

Pakistan Crime: 'চুরি করেনি' প্রমাণ দিতে এক শিশুকে গরম কুঠার (hot axe) জিভ দিয়ে চাটানোর অভিযোগ উঠেছে পাকিস্থানে (Pakistan)।

  • Share this:

    #দেরা গাজি খান, পাকিস্থানঃ  'চুরি করেনি' প্রমাণ দিতে এক শিশুকে গরম কুঠার (hot axe) জিভ দিয়ে চাটানোর অভিযোগ উঠেছে পাকিস্থানে (Pakistan)।  স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম DAWN-র রিপোর্ট অনুযায়ী, ফাজালা কচ্ছ, তুমন বুজদারের ববর্ডার মিলিটারি পুলিশ (Border Military Police)  যে তিন ব্যক্তি এই জঘন্য অপরাধের সঙ্গে যুক্ত, তাদের গ্রেফতার করেছে।

    সন্দেহজনক তেহসেব মেষপালক। তাঁর বিরুদ্ধে একটি চায়ের কেটলি চুরি করার অভিযোগ উঠেছে। তেহসেবের বাবা যান মুহম্মদ জানিয়েছেন, ছেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগও দায়ের করা হয়। ঘটনার জেরে তেহসেবের জিভ ভয়ঙ্কর ভাবে পুড়ে গিয়েছে। তেহসিন হেডকোয়ার্টার হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তার। পুলিশ সিরাজ, রহিম এবং মহম্মদ খান নামে  তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে।

    স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, বালুচিস্থানের আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ (tribal Baloch) এখনও কাউকে নির্দোষ প্রমান করতে এখনও জলপড়া (draconian water) এবং আগুন  (fire tradition) নিয়ে একাধিক পরিক্ষা-নিরীক্ষার রীতিতে বিশ্বাসী।  তেহসেবের ক্ষেত্রেও তাই তার বিকল্প হয়নি। আদিবাসীদের বিশ্বাস, যারা নির্দোষ আগুনের পরীক্ষায় তারা পাশ করে যান, কোনও ক্ষতি হয় না। কিন্তু দোষ করলে তা এতেই ধরা পড়ে। আহত হন তিনি এবং একইসঙ্গে তাকে শাস্তির নিদান দেওয়া হয়। পাশাপাশি, নির্দোষ হলে জলের তলায় একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ডুবে থাকতে পারেন, তার কোনও ক্ষতি হয় না।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: