ভিডিও কলে 'সব' দেখতে চাইল হবু বউ, সম্মান-অর্থ খুইয়ে পুলিশের কাছে বর!

ভিডিও কলে 'সব' দেখতে চাইল হবু বউ, সম্মান-অর্থ খুইয়ে পুলিশের কাছে বর!
প্রতীকী ছবি

শ্রেয়া দাবি করেছিলেন তিনি বেঙ্গালুরুর ইলেকট্রনিক সিটিতে থাকেন। সম্বিতকে তিনি বলেছিলেন, ভালো কাজ নেই তাঁর হাতে। এর পর থেকে নানা কাজের লিংক পাঠিয়ে সংসার করার স্বপ্ন দেখা শুরু করেছিলেন তাঁরা।

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: ম্যাটট্রিমোনিয়াল সাইট থেকে আলাপ হয়েছিল সম্বিত ও শ্রেয়ার (নাম পরিবর্তিত)। বিয়ের জন্য কথাও এগিয়ে যাচ্ছিল। তবে তার কয়েকদিন আগেই হল বিপত্তি। বিয়ের আগেই ভিডিও কলে হবু স্বামীর 'শরীর' দেখতে চেয়েছিল মেয়েটি। এমনকী চাপ দিয়ে ২০ হাজার টাকাও নিয়েছিলেন শ্রেয়া। ৩৩ বছরের ব্যবসায়ী পাত্র শেষ পর্যন্ত পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন। মেয়েটি সেই ভিডিও রেকর্ড করে রেখে সেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করার হুমকি দেয় বলে অভিযোগ করেছেন সম্বিত।

    বেঙ্গালুরুর আর আর লেআউটের বাসিন্দা সম্বিত। জীবন সাথী নামের একটি ম্যাটট্রিমোনিয়াল সাইটে তিনি প্রোফাইল তৈরি করেছিলেন। সেখান থেকে নিজের হবু স্ত্রীকে খোঁজার কাজ চালাচ্ছিলেন তিনি। সেখানেই শ্রেয়ার সঙ্গে তাঁর পরিচয় এবং তাঁরা দেখা করতেও শুরু করেন। শ্রেয়া দাবি করেছিলেন তিনি বেঙ্গালুরুর ইলেকট্রনিক সিটিতে থাকেন। সম্বিতকে তিনি বলেছিলেন, ভালো কাজ নেই তাঁর হাতে। এর পর থেকে নানা কাজের লিংক পাঠিয়ে সংসার করার স্বপ্ন দেখা শুরু করেছিলেন তাঁরা।

    সম্বিতের দাবি, গত ৭ ফেব্রুয়ারি শ্রেয়া তাঁকে ফোন করে বলেন, যেহেতু তাঁরা বিয়ে করতে চলেছেন, তাই ভিডিও কলে শরীরের সব অঙ্গপ্রত্যঙ্গ দেখাতে হবে সম্বিতকে। এমনকী শ্রেয়াও নিজের 'সব' দেখাতে রাজি হয়ে যায়। একটি নগ্ন ছবি পাঠিয়ে সম্বিতকে তিনি আশ্বস্ত করেন সেটি তাঁর ছবি। এর পর সম্বিতও রাজি হয়ে যান শরীর দেখাতে। তাঁর অভিযোগ, এই ভিডিও কলের পরই সম্বিতকে ফোন করে এক লক্ষ টাকা দাবি করেন শ্রেয়া। নয়তো সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও আপলোড করার হুমকি দেওয়া হয়।


    সম্বিত জানান তাঁর কাছে অত টাকা নেই। প্রথমেই ৫ হাজার টাকা পাঠায় সম্বিত ফোন পে-র মাধ্যমে। কিন্তু শ্রেয়া আরও টাকা দাবি করেন। এর পর ফোন ব্লক করে দেন সম্বিত। তার পরও শ্রেয়া বিভিন্ন নম্বর থেকে ফোন করা শুরু করে। সম্বিত এর পর ফের ১০ হাজার টাকা পাঠায়। কিন্তু এর পরেও ব্ল্যাকমেল চালাতে থাকে শ্রেয়া। অবশেষে পুলিশের দ্বারস্থ হন সম্বিত। পুলিশ যদিও ফোনের নম্বর ট্রেস করে জানতে পেরেছে মেয়েটি এরাজ্যের হাওড়ার বাসিন্দা। প্রতারণার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে শ্রেয়ার বিরুদ্ধে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    লেটেস্ট খবর