বোমা স্থানান্তরিত করতে গিয়ে বিস্ফোরণ, ঝলসে গেল ব্যক্তি

বোমা স্থানান্তরিত করতে গিয়ে বিস্ফোরণ, ঝলসে গেল ব্যক্তি

শরীরের বেশিরভাগ অংশ আগুনে ঝলসে যায়।

শরীরের বেশিরভাগ অংশ আগুনে ঝলসে যায়।

  • Share this:

#কলকাতা:  রবিবার সন্ধ্যা সাতটা থেকে সাড়ে সাতটা। নোদাখালি থানার, ডোঙারিয়া হাইস্কুলের পেছনে পালপাড়া গলির মুখে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। ওই বিস্ফোরণে গুরুতর আহত হয়, শেখ আক্কাশ। তার শরীরের বেশিরভাগ অংশ আগুনে ঝলসে যায়।  সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় একটি নার্সিংহোমে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসা হয়নি ।পরে তাকে কলকাতার বাঙ্গুর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।  ঘটনা সূত্রে জানা যায়, অভি অধিকারী ওরফে গোপাল অধিকারি, তার বাড়ির বারান্দায় আক্কাশ ও আরও দুজন মিলে পিকনিক করছিল। সূত্রের খবর পিকনিক নয়। শনিবার ভোট শেষ হয়ে যাওয়ার পর, রবিবার সন্ধ্যাবেলা পেট্রলবোমা জাতীয় বোম ওখান থেকে স্থানান্তরিত করছিল। সেই সময় হাত থেকে পড়ে গিয়ে ব্লাস্ট হয়ে ঝলসে যায় শেখ আক্কাশ।  পালপাড়ায় যাওয়ার পর নিস্তব্ধ ছিল এলাকা। ঘটনাস্থল পেটে এক ঘন্টা লেগেছিল। কাউকে জিজ্ঞাসা করলেই উত্তর, ' জানিনা '।এমনকি সামনের বাড়ির মহিলা ,জানিয়ে দিয়েছিল,তিনি হার্টের রোগী,কিছুই জানেনা।  অবশেষে পাওয়া গেল অভির বাড়ি। অভির পাশের ঘরের আত্মিয়া শম্পা অধিকারী, আমাদের জানালেন, তিনি গতকাল সন্ধ্যায় বাড়ি ছিলেন না। কিন্তু তিনি লোক মুখে শুনেছেন, স্টোভ বাস্ট হয়ে একজন ঝলসে গেছে।   স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য কমলা মন্ডল, জানালেন ,অভিকে নাকি তিনি জিজ্ঞাসা করেছিলেন। তাকে অভি জানিয়েছিল,হাত থেকে বোম পড়ে ফেটে গেছে।  পুলিশের কাছে এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে, পুলিশ নিজেরাই বিষয়টি নিয়ে ধোঁয়াশা আছে বলে আমাদেরকে জানান।  যেখানে পেট্রোল বোমা বাস্ট হয়েছিল ,সেখানে বহু জিনিসপত্র পুড়ে গেছে, তারপরে রীতিমতো জল ঢেলে ধুয়ে দিয়ে তথ্য প্রমাণ লোপাট করেছে ওরা।ওখানে গেলে কিছু হয়েছে বলে ,বোঝার উপায় নেই।  তবে স্টিলের থালা,কাঠের জিনিসপত্র পুড়ে গেছিল।যে বাল্বটি ঝোলানো ছিল,সেই বাল্বটি অর্ধেক ভেঙে ঝুলছিল।পেট্রোল বোম বলার কারণ , বার্স্ট হওয়া স্টোভের কোনো নমুনা পাওয়া যায়নি।তবে একজন ঝলসে যাওয়ার কারণ,পেট্রোল বোমা ফেটেছে বলে।

Shanku Santra

Published by:Debalina Datta
First published: